গুগলে স্বপ্নের চাকরি : ‘আমি কখনও বিসিএস দেইনি’


Published: 2018-08-31 13:05:27 BdST, Updated: 2018-09-23 19:04:02 BdST

যোবােয়ের আহসান : রাইহাত জামান নিলয়। ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন দেখতেন তিনি মস্তবড় ইঞ্জিনিয়ার হবেন। সেভাবেই নিজেকে প্রস্তুত করেছেন। বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান নিলয়ের বেড়ে ওঠা যশোর শহরে। যশোর জিলা স্কুল থেকে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে ভর্তি হন যশোর ক্যান্ট. কলেজে। সেখানেও তিনি মেধার স্ফুরণ ঘটিয়েছেন। জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন তিনি।

স্কুল-কলেজের পাঠ চুকিয়ে ভর্তি হন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে। বিভাগের ৪১ ব্যাচের এই ছাত্র সম্প্রতি বিশ্বের সর্ববৃহৎ সার্চ ইঞ্জিন গুগলে ‘সফটাওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার’ পদে চাকরির অফার পেয়েছেন। বর্তমানে তিনি সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে NewsCred এ কর্মরত আছেন। ২৩ আগস্ট তিনি গুগলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার পদে চাকুরির অফারটি হাতে পান। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি বছরের শেষের দিকে তিনি গুগলে যোগদান করবেন।

ছোটবেলা থেকেই দুরন্তপনা ছিল নিলয়। সময় পেলেই ব্যাট-বল নিয়ে মাঠে দৌঁড়াতেন। কিন্তু ক্লাস ওয়ান থেকেই তার ইচ্ছা ছিল বিদেশে গিয়ে পড়ালেখা করা।

এর আগে নিলয়ের গুগলে চাকরি নিয়ে ক্যাম্পাসলাইভে নিউজ করা হলে অনেকেই প্রশ্ন করেন নিলয় বিসিএসে পরীক্ষা দিয়েছে কিনা। অনেকের বদ্ধমূল ধারণা হয় মেধাবী এই ছাত্রের বিসিএসে চান্স হয়নি তবে গুগলে চান্স হয়েছে। এসময় বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থা নিয়েও প্রশ্ন তুলেন অনেকে। এসব বিষয়ে নিলয় জানালেন তিনি কখনওই বিসিএসের চিন্তা করেননি। ছোটবেলা থেকেই তার একমাত্র ইচ্ছা ছিল কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার। সেভাবেই নিজেকে প্রস্তুত করেছেন তিনি। ভালো সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার স্বপ্ন এবার সফল হতে চলেছে তার।

ক্যাম্পাসলাইভকে জানালেন, সিনিয়র ভাইদের প্রোগ্রামিং ট্রেনিং ক্লাস করতে যেয়ে জানতে পারি - ‘আরিফ ভাই গুগলে চাকরি করেন, তার মত হতে গেলে প্রোগ্রামিংএ দক্ষ হওয়া ছাড়া উপায় নেই’। শোভন ভাইয়ের (সিএসই-৩৯) সেই কথা আমার খুব মনে ধরে এবং চিন্তা করতে থাকি কিভাবে প্রোগ্রামিং শিখলে গুগলের অফিসে বসে একটা কোড করতে পারব। তাই, তারপর থেকে আমার পড়াশোনার ধারাটা সেই দিকেই নিয়ে যাই।

তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে নিলয় ও তার দল কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশের মর্যদা সমুন্নত রেখেছেন। গত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক প্রোগ্রামিং কন্টেস্টে জাবি ভাল করে আসছে। আর এ সকল অর্জনে নিলয়ের ছিল প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণ। তিনি ও তার দল ২০১৫ এসিএম আইসিপিসি ঢাকা রিজিওনাল কন্টেস্টে প্রথম স্থান অধিকার করে। ২০১৬ এসিএম আইসিপিসি ওয়ার্ল্ড ফাইনালসে অংশগ্রহণের সুযোগ পায় তার দল। এছাড়া ২০১৭ এসিএম আইসিপিসি ওয়ার্ল্ড ফাইনালসেও তার দল জাবি এবং বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করে। তার অর্জন হিসেবে রয়েছে বিভিন্ন জাতীয় কন্টেস্টে চ্যাম্পিয়ন ও রানার-আপ সহ সেরা দশে অবস্থান।

ভবিষ্যতে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে অবদান রাখতে চান নিলয়। তার ইচ্ছা গুগলের মতো বৃহৎ সফটওয়্যার কোম্পানিতে কাজের অর্জিত অভিজ্ঞতা দিয়ে আমাদের দেশের তথ্য-প্রযুক্তি খাতের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করা।

তিন বলেন গুগল, ফেইসবুক, মাইক্রোসফটের মত কোম্পানিতে চাকরির জন্যে কঠোর পরিশ্রম করে লেগে থাকা প্রয়োজন। এজন্য প্রোগ্রামিং এবং প্রবলেম সলভিংয়ে দক্ষ হতে হবে। তার সাথে এলগোরিদম, ডেটা স্ট্রাকচার, গ্রাফ থিওরিসহ সিএসই বেসিক বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

স্বপ্নের কথা বলতে গিয়ে নিলয় জানালেন, তিনি স্বপ্ন দেখেন বাংলাদেশ একসময় তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে স্বয়ংসম্পন্ন হয়ে উঠবে। এজন্য চাই দক্ষ জনবল। কিন্তু এই দেশে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার মতো ইন্টারন্যাশনাল মানের কোন ইনফ্রাস্ট্রাকচার নেই। একটা নির্দিষ্ট সময় চাকরির পর দেশে এসে অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর স্বপ্ন দেখেন এই মেধাবী ছাত্র।

জানালেন, যেহেতু গুগলে চাকরির সুযোগ পেয়েছি তাই সেখানকার অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশে এসে ইন্টারন্যাশনাল মানের কোন ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপ করার চেষ্টা করবো।

ঢাকা, ৩১ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।