মামলা করলেন ফ্লয়েড-হত্যায় অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের স্ত্রী


Published: 2020-06-05 14:49:41 BdST, Updated: 2020-07-16 08:45:38 BdST

লাইভ ডেস্ক: অবশেষে মামলার পথ বেঁচে নিলেন। এনিয়ে দুনিয়াজুড়ে চলছে তোলপাড়। ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে যখন সারা দেশ উত্তাল, ঠিক সে সময় ডিভোর্সের মামলা করে বসলেন খুনি পুলিশ অফিসার ডেরেক শওভিনের স্ত্রী কেলি মে শওভিন।

পাশাপাশি নিজের পদবি পাল্টানোর আর্জিও জানিয়েছেন ৪৫ বছর বয়সী এই নারী। অবশ্য সে জন্য কোনো ক্ষতিপূরণ বা খোরপোষ দাবি করেননি তিনি। এ খবর দিয়েছে এনডিটিভির। তৃতীয় ডিগ্রি খুনের ধারায় শওভিনের বিরুদ্ধে করা মামলাটি ইতোমধ্যে সেকেন্ড ডিগ্রিতে উন্নীত করা হয়েছে।

সেই পুলিশ অফিসার

 

এব্যাপারে ঘটনার সময় তাকে সাহায্য করার জন্য আরও তিন পুলিশকর্মীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আর এই ঘটনার জেরেই ভাঙতে চলেছে অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের ১০ বছরের দাম্পত্য সম্পর্ক।

জানা যায় ২৫ মে চেক জালিয়াতির অভিযোগে, মিনিয়াপলিসে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে রাস্তায় ফেলে নৃশংস অত্যাচার চালিয়ে হত্যা করে ডেরেক শওভিন। জর্জের পিঠের ওপর চাপ দিয়ে বসে থাকেন তিনি এবং আরও দুই পুলিশকর্মী। তার জেরে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় জর্জ ফ্লয়েডের।

এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে এই ঘটনার ভিডিও। তারপর থেকেই হিংসার আগুনে জ্বলছে যুক্তরাষ্ট্র। কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন অসংখ্য মানুষ।

বিক্ষোভকারীরা অনেক সংবাদ কর্মীকে শারিরীক ভাবে হেনস্থা করেছে। লুটপাত করেছে বিভিন্ন দোকান ও শোরুম।

ঢাকা, ০৫ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।