ভাড়া দিতে ব্যর্থ, বাড়িওয়ালার হেনস্তায় শ্রমিকের আত্মহত্যা


Published: 2020-05-19 17:21:44 BdST, Updated: 2020-05-29 21:46:19 BdST

লাইভ ডেস্কঃ বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের তাণ্ডবে সবকিছুই যেন এলোমেলো হয়ে গিয়েছে। দেশে দেশে চলছে লকডাউন আর এতে করে খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষরা পড়েছে চরম বিপদে। এমন পরিস্থিতিতে ভারতে লকডাউনে কাজকর্ম বন্ধ থাকার কারণে ভাড়া দিতে না পারায় বাড়িওয়ালার হেনস্তার শিকার হয়ে এক শ্রমিকের আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

গত রোববার সকালে গুরুগ্রামের সেক্টর ১১-র এক ভাড়া বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ সময় ওই বাসা থেকে একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করা হয়েছে। ওই নোটে বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে হেনস্তার অভিযোগ করেছেন ওই শ্রমিক। এ ঘটনায় ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৬ নম্বর ধারায় মামলা হয়েছে।

শিবাজি নগর থানার পুলিশ জানায়, রবিবার সকাল ৬টা দিকে ওই শ্রমিকের এক প্রতিবেশী তাকে ডাকতে যান। তখনই দেখেন ঘরে পড়ে রয়েছে শ্রমিকের মরদেহ। এরপর পুলিশে খবর দেন তিনি। ওই ঘর থেকে সুইসাইড নোটের পাশাপাশি উদ্ধার হয় একটি বিষের খালি প্যাকেটও।

সুইসাইড নোটে মৃত শ্রমিক তার বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে হেনস্তার অভিযোগ করেন। ভাড়া চেয়ে প্রায়ই নানা কটু কথা শোনানো হতো তাকে। কোনো উপায় না পেয়ে আত্মহননের সিদ্ধান্ত নেন পরিযায়ী শ্রমিক।

এক প্রতিবেশী জানান, ভাড়া দেয়ার জন্য প্রায়ই ওই শ্রমিককে চাপ দেয়া হতো। খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, মালিকের ৩০ হাজার টাকা বকেয়া মেটাতে না পেরেই এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

ওড়িশায় থাকা মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তারা আপাতত কনটেনমেন্ট জোনের আওতায় রয়েছে। তাছাড়া গুরুগ্রাম গিয়ে মৃতদেহ আনার সামর্থ্যও নেই বাড়ির সদস্যদের। তাই শ্রমিকের মরদেহ আপাতত মর্গেই রয়েছে।

ঢাকা, ১৯ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।