চির নিদ্রায় মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারক


Published: 2020-02-25 22:42:24 BdST, Updated: 2020-04-05 03:42:31 BdST

লাইভ ডেস্কঃ পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে ওপারে চলে গেলেন মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারক। ৯১ বছর বয়সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ২০১১ সালে এক সামরিক অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হন তিনি।

টানা ৩ দশক মিসর শাসন করেন এই প্রয়াত রাজনীতিবিদ। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পরে বিক্ষোভকারী হত্যার অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হন তিনি। তবে পরে ২০১৭ সালে ওই রায় থেকে থেকে মুক্তি প্রদান করা হয়।

এর আগে তার ছেলে আলা বলেছিলেন, হোসনি মুবারক কায়রোর সামরিক হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভর্তি রয়েছেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। ২০১১ সালে আরব বসন্তের সময় দেশটিতে স্বৈরশাসনবিরোধী গণআন্দোলনের মুখে ক্ষমতাচ্যুত হন হোসনি মুবারক। ১৯৮১ সালে দেশটির চতুর্থ প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা লাভ করেন তিনি।

আরব বসন্তের সময় কয়েকশ বিক্ষোভকারীকে হত্যা করার অভিযোগে গ্রেফতার হন তিনি। সেই সময় আরব বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জেঁকে বসা স্বৈরতন্ত্রের ভিত কাঁপিয়ে দিয়েছিল তিউনিশিয়ায় শুরু হওয়া আরব বসন্ত।

২০১১ সালের জানুয়ারিতে শুরু হওয়া বিক্ষোভের ১৮ দিনের মাথায় ক্ষমতাচ্যুত হয়েছিলেন হোসনি মোবারক। আরব বসন্তের সময় তার নির্দেশে ২৩৯ বিক্ষোভকারীকে নিরাপত্তা বাহিনী সদস্যরা গুলি করে হত্যা করেন বলে আদালতে প্রমাণিত হয়। এরই প্রেক্ষিতে ২০১২ সালে দেশটির নিম্ন-আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করে।

তবে ওই রায়ের বিরুদ্ধে দু'বার উচ্চ আদালতে আপিল করেন হোসনি মোবারক। এছাড়া সরকারি তহবিল তসরুফের অভিযোগেও তিন বছরের কারাদণ্ড ভোগ করেন তিনি। ২০১৭ সালে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ থেকে খালাস পাওয়ার পরে কারাগার থেকে ছাড়া পান হোসনি মোবারক।

ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।