একজন নাইটিঙ্গেলের ওপর নৃশংসতা, মানবতার মৃত্যু!


Published: 2018-06-05 13:30:33 BdST, Updated: 2018-06-20 17:10:20 BdST

ইন্টারন্যাশনাল লাইভ : ২১ বছর বয়সেই পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। দিনে ১৩ ঘণ্টা করে আহত ব্যক্তিদের সেবা দিয়েছেন। যেখানেই আর্থ পীরিত মানুষ পেয়েছেন সেখানেই ছুটে গিয়েছেন তিনি। আর ওই সেবারত অবস্থাতেই গুলিতে নিহত হয়েছেন তিনি। বলছি নাজর আল নাজ্জরের কথা। গাজা উপত্যাকায় ফিলিস্তিনিদের বসতবাড়িতে ফেরার বিক্ষোভে তার সক্রিয় উপস্থিতি ছিল। সবাই দেখছে, ইসরায়েলি স্নাইপারদের গুলিতে আহত ব্যক্তিদের সেবা দিতে সাদা পোশাক পরা এক নারী স্বাস্থ্যকর্মী সদা তৎপর। এতটুকু বিশ্রাম নেওয়ারও যেন জো নেই তার। ২১ বছর বয়সী রাজন আল-নাজ্জার দিনে ১৩ ঘণ্টা করে আহত ব্যক্তিদের সেবা করেছেন। কেউ আহত হলেই তিনি ছুটে যেতেন তার কাছে। শুশ্রূষা দিয়ে তাকে সুস্থ করে তোলার প্রাণান্ত চেষ্টা করতেন। জখম গুরুতর হলে অ্যাম্বুলেন্সে উঠিয়ে হাসপাতালে পাঠিয়ে দিতেন। জরুরি চিকিৎসাসেবার স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে দেখিয়েছেন, নারী হলেও সেবার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে অনেক কিছু করার আছে তার। তা প্রমাণও করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ৩০ মার্চ থেকে বিক্ষোভ করে আসছে গাজাবাসী। ১৯৪৮ সালে ইসরায়েল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার সময় ফিলিস্তিনিরা যে ভূখণ্ড হারিয়েছে, তা ফিরে পাওয়ার দাবিতে চলছে বিক্ষোভ। এই বিক্ষোভের লাশের মিছিলে যুক্ত হলেন এক নারী স্বাস্থ্যকর্মী। তার নাম রাজন আল-নাজ্জার। তিনি ছিলেন আরবের ঊষর মরুপ্রান্তরে পীড়িত মানুষের জন্য একজন নাইটিঙ্গেল।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বেচ্ছাসেবী স্বাস্থ্যকর্মী রাজন আল-নাজ্জার (২১) গত শুক্রবার খান ইউনিসে বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন। আহত বিক্ষোভকারীদের প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা দিতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন নাজ্জার। এই তরুণীর সঙ্গে আরও তিনজন গুলিবিদ্ধ হন। জেনেভা সনদ অনুযায়ী, স্বাস্থ্যকর্মীদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া যুদ্ধাপরাধ। এমন যুদ্ধাপরাধ ইসরায়েল হরহামেশাই করে যাচ্ছে, যা বিশ্ব মানবতার কাছে বরাবরই উপেক্ষিত।

গাজার দক্ষিণাঞ্চলে ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে নিহত স্বাস্থ্যকর্মী রাজন আল-নাজ্জারের জানাজায় শনিবার হাজারো মানুষের ঢল নামে। নাজ্জার নিহত হওয়ার ঘটনায় মধ্যপ্রাচ্যে জাতিসংঘের দূত নিকোলা ম্লাদেনভ শনিবার এক টুইটে লেখেন, স্বাস্থ্যকর্মীরা লক্ষ্যবস্তু হতে পারেন না। বলপ্রয়োগের ক্ষেত্রে ইসরায়েলের মানদণ্ড অনুসরণ করা উচিত। আর হামাসেরও উচিত, সীমান্ত বেড়ায় চলমান ঘটনাগুলো প্রতিরোধ করা।

জানা গেছে, খান ইউনিসের প্রতিবাদ শিবিরে রাজনই ছিলেন প্রথম নারী চিকিৎসাকর্মী। একজন নারী কী কী করতে পারেন, তা তিনি বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছেন। আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, গত শুক্রবার মাগরিবের আজান দিতে ঘণ্টাখানেক সময় বাকি। রাজন বাড়িতে যাওয়ার কথা ভাবছিলেন। কিন্তু তিনি দেখলেন এক বিক্ষোভকারী আহত হয়ে পড়ে আছেন। দ্রুত তার কাছে ছুটে গেলেন। চিকিৎসা দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে উঠিয়ে দেন। ইসরায়েলি সেনারা তখন তাকে লক্ষ্য করে দুটি কিংবা তিনটি গুলি ছোড়েন। বুকে গুলিবিদ্ধ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন এই সময়ের মরুর নাইটিঙ্গেল।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, মাস দুয়েক ধরে ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভে ইসরায়েলি গুলিতে রজনকে নিয়ে ১২৩ জন নিহত হয়েছেন। গত শুক্রবার অনেকেই আহত হলেও নিহত হন রাজনই। একজন স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে রাজনকে আলাদাভাবে শনাক্ত করা গেলেও ইসরায়েলি সেনাসদস্যরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জেনেভা কনভেনশন অনুসারে যেটি সুস্পষ্ট যুদ্ধাপরাধ।

বরাবরের মতোই শনিবার জাতিসংঘসহ বিভিন্ন সংস্থা ক্ষোভ প্রকাশ করে বিবৃতিতে জানিয়েছে, এটি ভয়ংকর নিন্দনীয় অপরাধ। হত্যাকাণ্ড নিয়ে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী তদন্ত শুরুর কথা জানিয়েছে।

১৯৪৮ সালে ইহুদি সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলায় প্রায় সাড়ে সাত লাখ ফিলিস্তিনি নিজেদের বসতবাড়ি থেকে বিতাড়িত হয়। নিজেদের ভূমিতে ফিরে যাওয়ার অধিকারের দাবিতে গত ৩০ মার্চ থেকে গ্রেট মার্চ ফর রিটার্ন নামে আন্দোলন শুরু হয়েছে। এলাকাটি পৃথিবীর সবচেয়ে বড় কারাগার বলা যেতে পারে। গত ১৪ মে তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে ফিলিস্তিনিরা বিক্ষোভ শুরু করেন। ইসরায়েলি স্নাইপারদের গুলিতে ৬২ জন নিহত হন।

ঢাকা, ০৫ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।