জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের টার্গেট ২২৪ রান


Published: 2019-07-11 20:22:03 BdST, Updated: 2019-08-22 22:29:46 BdST

স্পোর্টস লাইভ: বিশ্বকাপের আসরে এখন পর্যন্ত ৬টি সেমিফাইনাল খেলেছে অস্ট্রেলিয়া। শুধু তাই নয়, ৬ বার ফাইনাল খেলে ৫টি শিরোপা ঘরে তুলেন। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে শতভাগ জয়ের রেকর্ড অস্ট্রেলিয়ার। এখন পর্যন্ত, ৬ বার খেলে প্রতিবারই তারা জায়গা করে নিয়েছে ফাইনালে। সেই ধারা অব্যাহত রাখতে বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামছে অস্ট্রেলিয়া। বার্মিংহামের ব্যাটিং বান্ধব উইকেটে টস জিতে আগে ব্যাট করবে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

সে ধারা অনুযায়ী আজও বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের মত অর্ধশতক তুলে নেন স্মিথ। শেষ পর্যন্ত তিনি আউট হন ৮৫ রানে। তবে কি আজও জয় পেতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া? কিন্তু এ ক্ষেত্রে অতিবড় অসি সমর্থকও আশাবাদী হতে পারছেন না। কারণ, অস্ট্রেলিয়ার পুঁজি যে খুবই কম! মাত্র ২২৩ রান!

শুধু আর্চার নয়, আরেক ইংলিশ পেসার ক্রিস ওকসও পেস সুইংয়ে ছিন্নভিন্ন করে তোলে অজিদের টপঅর্ডার। ফিঞ্চের পরপরই ৯ রান করে ক্রিস ওকসের বলে বেয়ারস্টোকে ক্যাচ দিয়ে মাঠ ছাড়েন বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের মেশিন ডেভিড ওয়ার্নারও। ক্রিস ওকসকে সামাল দিতে পারেননি আরেক অজি ব্যাটসম্যান হ্যান্ডসকম্ব। মাত্র ৪ রান করে বোল্ড হয়ে ফেরেন তিনি।

এরপর অজিদের হাল ধরেন স্মিথ ও অ্যালেক্স ক্যারি। দুজন মিলে শতরানের জুটিও গড়েন। তবে সে জুটি ভাঙেন আদিল রশিদ। ক্যারিকে অর্ধশতক হাঁকানোর আগেই বিদায় করেন তিনি। একই ওভারে হাফসেঞ্চুরি করা স্মিথকে সঙ্গ দিতে আসা স্টয়নিসকেও এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে সাজ ঘরে ফেরান আদিল রশিদ।

তার জোড়া আঘাতে চাপে পড়লে নতুন ব্যাটসম্যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল অস্ট্রেলিয়াকে চিন্তামুক্ত করার চেষ্টা করেন। তার স্বভাবসুলভ ব্যাটিংয়ে আসে ২১টি রান। যার মধ্যে ২ চার ও ১টি ছয়ের মারও ছিল। কিন্তু ইংলিশ পেসার আর্চারের বল বুঝে ওঠার আগেই ব্যাট চালিয়ে ক্যাচ আউট হয়ে ফেরেন ম্যাক্সওয়েল। পুরো আসরজুড়ে দাপুটে অস্ট্রেলিয়া আজ যেন ছন্দহীন। স্মিথকে সঙ্গ দিতে এসে কেউই দাঁড়াতে পারেননি।

৬ রান করা কামিন্সও ফেরেন আদিল রশিদের ঘূর্ণিতে। এতেই ব্যাট হাতে চরম বিপর্যয়ে পড়ে ৫ বারের চ্যাম্পিয়নরা। দলের এই বিপদের সময় একাধারে উইকেট আগলে রাখা স্মিথও রান আউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন। অজি ব্যাটিং অর্ডারে তিনিই একমাত্র সর্বোচ্চ ৮৫ রান সংগ্রহ করেন। ইনিংসের শেষ দিকে তার সঙ্গে বেশ ছন্দে ব্যাট চালান মিচেল স্টার্ক। তবে তড়িঘড়ি করে রান নিতে গিয়ে তিনিও ভুল শট খেলে জস বাটলারকে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। তিনি করেন ৩৬ বলে ২৯ রান।

এদিকে ইংলিশ বোলারদের মধ্যে ক্রিস ওকস মাত্র ২০ রান দিয়ে তিনটি উইকেট তুলে নেন। এছাড়া আদিল রশিদও নেন তিন উইকেট। পাশাপাশি আর্চার ২ ও মার্ক উড ১টি করে উইকেট সংগ্রহ করেন।

ইংল্যান্ড একাদশ
জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, এউইন মরগান (অধিনায়ক), বেন স্টোকস, জস বাটলার, ক্রিস ওকস, মার্ক উড, জোফরা আর্চার, লিয়াম প্লাঙ্কেট, আদিল রশিদ।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ
অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, মার্কোস স্টইনিস, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যালেক্স ক্যারি, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, জেসন বেহরেনডর্ফ, নাথান লায়ন।

ঢাকা, ১১ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।