মানবদেহে আরো একটি করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষা


Published: 2020-05-27 16:27:40 BdST, Updated: 2020-07-10 09:06:25 BdST

লাইভ ডেস্কঃ সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর সংক্রমণ। এখন পর্যন্ত শতভাগ কার্যকর কোনো ভ্যাকসিন না থাকায় বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এমন পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ায় করোনা ভাইরাসের সম্ভাব্য আরেকটি ভ্যাকসিনের মানবদেহে পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

নোভাভ্যাক্স নামের এই ভ্যাকসিনটি মঙ্গলবার থেকে মানবদেহে প্রবেশ শুরু হয়েছে। এতে ১৩১ জন স্বেচ্ছাসেবী অংশ নিয়েছেন। এটি কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে কার্যকরি কিনা এবং এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা তা নিশ্চিত হতেই এই পরীক্ষা।

কোম্পানিটির গবেষক দলের প্রধান ড. গ্রেগরি গ্লেন এসব তথ্য জানিয়েছেন। তারা ভ্যাকসিনটি নিয়ে আশাবাদি। ইতিমধ্যে বিশ্বজুড়ে প্রায় এক ডজন ভ্যাকসিন মানবদেহে পরীক্ষা শুরু হয়ে গেছে। এর বেশিরভাগই চীনের।

পাশাপাশি রয়েছে ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রেও। তবে এখনো এর মধ্যে কোনোটিই শতভাগ কার্যকর ও নিরাপদ প্রমাণিত হয়নি। সবগুলোই আংশিক কার্যকর। তাই সবাই আশা করে আছে যে হয়ত কোনো ভ্যাকসিন পুরোপুরি সফল হবে। গ্লেন বলেন, আমরা এখন পরীক্ষা করে দেখছি ভ্যাকসিন কার্যকর কিনা।

কার্যকর হলে এটি এ বছরের শেষ নাগাদ উৎপাদন শুরু করা যাবে। প্রাণীদেহে এর আগে এই ভ্যাকসিন প্রবেশ করানো হয়েছিল। তাতে এর কার্যকারিতা পাওয়া গেছে। মানবদেহে এটি কার্যকর হলে এ বছরেই ১০ কোটি নোভাভ্যাক্স তৈরি করা যাবে।

আর আগামি বছরে করা হবে ১৫০ কোটি মানুষের জন্য। এই ভ্যাকসিনের জন্য এখন পর্যন্ত বিনিয়োগ করা হয়েছে প্রায় ৪০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এটি করেছে নরওয়ে ভিত্তিক একটি সংস্থা। আগামি জুলাই মাসেই ভ্যাক্সিনের ফলাফল সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে।

ঢাকা, ২৭ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।