ফেসবুকে বন্ধুত্ব করে শিক্ষিকাকে ধর্ষণ, প্রকৌশলী শ্রীঘরে


Published: 2019-04-10 15:32:45 BdST, Updated: 2019-07-21 02:36:14 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: ফেসবুকে বন্ধুত্ব করে এক শিক্ষাকাকে দিনের পর দিন ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ফেসবুক মাধ্যমটিতে যারা নানাভাবে লাঞ্চিত হন তাদের বেশিরভাগই নারী। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে। একজন প্রকৌশলী পরিচয়ে ফেসবুকে বন্ধুত্ব করেন এক শিক্ষিকার সঙ্গে। ওই শিক্ষিকাকে ব্ল্যাকমেইল করে দিনের পর দিন ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, ফেসবুকেই তাদের দুজনের পরিচয়। সেই সম্পর্ককে সুযোগ লাগিয়ে একদিন শিক্ষিকার সঙ্গে দেখা করতে চান অভিযুক্ত প্রকৌশলী। তারপর দেখা হলে শিক্ষিকাকে জোর করে একটি গেস্ট হাউসে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

এখানেই শেষ নয়। ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিওচিত্র ধারণ করে রাখেন অভিযুক্ত প্রকৌশলী। সেই ভিডিও ফাঁস করার ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন ওই শিক্ষিকাকে ব্ল্যাকমেইল করতে থাকে সে। অবশেষে ধর্ষণের অভিযোগে ২৮ বছর বয়সী সেই প্রকৌশলী গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশ কর্মকর্তা বিজয়ন্ত আর্য সংবাদবাধ্যমকে জানান, অভিযুক্ত ওই প্রকৌশলীর নাম কিষাণ। ধর্ষণের অভিযোগে তাকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ এবং ৬৭ ধারায় গ্রেফতার করা হয়।

নির্যাতিতা ওই শিক্ষিকা পুলিশকে জানান, ২০১৭ সালের অক্টোবরে কিষাণের সঙ্গে ফেসবুকে পরিচয় হয়। তারপর থেকে দুজনের মধ্যে কথা চলতে থাকে। সেই ব্যক্তি একদিন দেখা করার নামে আদর্শ নগরের একটি গেস্ট হাউসে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন তাকে।

 

ঢাকা, ১০ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।