উড়ে গেছে গানের পাখি, থেমে অাছে ক্যাম্পাসের সুর


Published: 2018-09-02 01:56:06 BdST, Updated: 2018-09-20 15:33:51 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : হাবিবুজ্জামান মিরান। পড়াশোনা করতেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগে। তার সুরে নিস্তব্ধতা কাটতো ক্যাম্পাসের। উৎসবে-পার্বনে সুরে সুরে জেগে উঠতো ক্যাম্পাস, জমে উঠতো অাড্ডা। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের সেই সুর থেমে গেছে। না ফেরার দেশে উড়ে গেছে গানের পাখি। আর কোনদিন ক্যাম্পাসে দেখা যাবে না তাকে। মাতিয়ে তুলবে না বিশ্ববিদ্যালয়। ঈদের ছুটিতে বাড়ি গিয়ে চিরবিদায় নিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্র। গত ২২ আগস্ট ঈদের দিনে ব্রেইন স্ট্রোক হয় তার। এর দুইদিন পরেই তিনি মারা যান।

মিরান রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ও একমাত্র মিউজিক ব্যান্ড ‘অগ্নিস্নান’ এর ভোকাল ছিলেন। মিরানের ইচ্ছে ছিল তার গানের মধ্য দিয়ে দেশ বিদেশে সুনাম কুড়াবেন। অকাল মৃত্যুতে সেই স্বপ্নও শেষ হয়ে গেছে।

মিরানের বড় ভাই হানিফুজ্জামান মোহন বলেন, গত ২২ আগস্ট ঈদের নামাজ শেষে কুরবানির জন্য প্রস্তুত হই আমরা তিন ভাই। হঠাৎ করে মিরান শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন। স্থানীয় ফার্মেসি থেকে ওষুধ খাওয়ার পর বিকেলে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে প্রথমে রংপুর এবং রাতে ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট এন্ড নিউরো সাইন্স হাসপাতালে স্থানান্তরিত করি। ২৩ আগস্ট শারীরিক অবস্থা ভালো ছিল কিন্তু গত ২৪ আগস্ট মাথায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে মিরান। তিন ভাইয়ের মধ্যে ছোট ছিলেন মিরান। তাকে হারিয়ে ওই পরিবারে ঈদের আনন্দটাই মাটি হয়ে যায়।

মিরানের অকাল মৃত্যুতে শোকে স্তব্দ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসও। তার মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, অগ্নিস্নান ব্যান্ড, শাখা ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শোক জানিয়েছে।

মিরানের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শনিবার ক্যাম্পাসে দোয়া মাহফিল করা হয়। যাফেটেরিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবম ব্যাচের সহপাঠীদের উদ্যোগে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ঢাকা, ০২ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।