একা হয়ে যাচ্ছেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি!


Published: 2019-04-11 13:03:46 BdST, Updated: 2019-08-18 11:31:49 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : একা হয়ে যাচ্ছেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. ইমামুল হক। নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের রাজাকারের বাচ্চা বলে মন্তব্যের পর থেকেই বেকায়দায় রয়েছেন ওই ভিসি। শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ দমাতে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা দিয়েও তার শেষ রক্ষা হচ্ছে না। শিক্ষার্থীরা বন্ধ ক্যাম্পাসেই ভিসির পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যান। পরে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও অচলাবস্থা কাটছে না। শিক্ষার্থীরা ক্লাসে আসছেন না।

এদিকে ভিসি প্রফেসর ড. ইমামুল হক দুই দফা তার বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেও ক্ষোভ থেকে বাঁচতে পারেননি। শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে তিনি ক্যাম্পাসেই আসতে পারছেন না। তিনি আর ক্যাম্পাসে আসতে পারবেন কি না এনিয়েও যথেষ্ট সংশয় রয়েছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। ভিসির আশেপাশের মানুষগুলো ক্রমেই তাকে ছেড়ে চলে যাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা থেকে শুরু করে কর্মচারীদের কেউ তাকে প্রকাশ্যে সাপোর্ট করছেন না। উপরন্তু কর্মচারি সমিতি আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। সর্বশেষ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতিও ভিসি প্রফেসর ড. ইমামুল হকের পদত্যাগের পক্ষে মত দিয়েছেন। ভিসির পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সহমত পোষন করেছেন তারা। শুধু তাই নয় টানা আন্দোলন কর্মসূচিও ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষকরা।

জানা গেছে, বুধবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের নিচে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন যৌক্তিক বলে দাবি করা হয়েছে। এছাড়াও আট দফা দাবী‌তে ব‌রিশাল বিশ্ববিদ্যাল‌য়ের ‌শিক্ষক স‌মি‌তি বৃহস্প‌তিবার থে‌কে টানা দুই ঘন্টা অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষনা দি‌য়ে‌ছেন। বুধবার দুপুর সা‌ড়ে তিনটায় ব‌রিশাল বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ের প্রশাস‌নিক ভব‌নে আ‌য়ো‌জিত সংবাদ স‌ম্মেল‌নে ওই তথ্য জানান ব‌রিশাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক স‌মিতির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মিয়া। তি‌নি আ‌রো বলেন, ব‌রিশাল বিশ্ব‌বিদ্যালয় বর্তমা‌নে শিক্ষক নির্যাত‌নের কারখানায় প‌রিণত হ‌য়ে‌ছে। এখা‌নে নেই কো‌নো শিক্ষার প‌রি‌বেশ। আইন করা হয় শিক্ষা প‌রিপন্থী, চ‌লে স্বেচ্ছাচারিতা। আর এই কার‌নে আট দফা দাবি ঘোষণা ক‌রা হ‌য়ে‌ছে। এর ম‌ধ্যে অন্যতম সি‌ন্ডি‌কে‌টের ৫৮তম সভা অনুসা‌রে শিক্ষ‌কের পদন্ন‌তিতে জ‌টিলতা শুরু হওয়ায় তা বা‌তি‌ল করতে হবে, শিক্ষক‌দের জেষ্ঠ্যতা এবং চেয়ারম্যান নি‌য়োগে অ‌নিয়ম দূর করা এবং শিক্ষা ছুটি‌তে অ‌নিয়ম এবং পক্ষপাত মূলক আচরণ বন্ধ করার দাবি জানানো হয় সংবাদ স‌ম্মেলন থে‌কে। তি‌নি আ‌রো ব‌লেন, শিক্ষার্থীরা বর্তমা‌নে যে আন্দোলন কর‌ছে তা যৌ‌ক্তিক। আমরা শিক্ষক হি‌সে‌বে অ‌নেক কিছুই কর‌তে পা‌রিনা। ত‌বে আমা‌দের অ‌ভি‌যোগ বিশ্ব‌বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অর্থাৎ উপাচা‌র্যের বিরু‌দ্ধেই। শিক্ষকদের সা‌থে পক্ষপাত মূলক আচরণ করা হ‌চ্ছে। ব্য‌ক্তি বি‌শেষ আইন কখ‌নো কঠোর হ‌চ্ছে, কখ‌নো শি‌থিল হ‌চ্ছে। আমরা আমা‌দের জায়গা থে‌কে ছাত্ররা যে অ‌হিংস ও শা‌ন্তিপূর্ন আ‌ন্দোলন কর‌ছে এর জন্য তা‌দের ধন্যবাদ জানাই। সংবাদ স‌ম্মেল‌নে শিক্ষক স‌মি‌তির কোষাধ্যক্ষ ওবায়দুর রহমান পিন্টু সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপ‌স্থিত ছিলেন।

এর আগে বুধবার দুপুরে কুয়াকাটা মহাসড়ক অব‌রোধ করে‌ন ব‌রিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এতে করে প্রায় সাড়ে ৫ কিলোমিটার ছয় ঘন্টা যাবৎ সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। বুধবার বেলা ১১টা থেকে শুরু হওয়া অবরোধ বিকাল ৫টা পর্যন্ত চলে। পরে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে বুধবারের মত আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেয় ববি শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য, গত ২৬ মার্চ ভিসি প্রফেসর ড. ইমামুল হক আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের রাজাকারের বাচ্চা বলে মন্তব্য করেন। এরপর থেকে শিক্ষার্থীরা তার পদত্যাগ দাবিতে টানা আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন।

ঢাকা, ১১ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।