বেরোবির ভর্তিতে জালিয়াতি : কে ওই প্রভাবশালী ‘আন্টি’!


Published: 2017-12-18 17:04:38 BdST, Updated: 2018-12-11 23:00:09 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে চলতি শিক্ষাবর্ষে ভর্তি জালিয়াতি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। মাত্র দুই থেকে তিন লাখ টাকায় ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে। ভর্তি জালিয়াতির ওই চক্রের এক নারী সদস্যকে নিয়ে শুরু হয়েছে নানা জল্পনা-কল্পনা। তিনি আন্টি নামে ভর্তিচ্ছুদের কাছে পরিচিত বলে জানা গেছে।

ছাত্রলীগের কয়েক নেতাকর্মীর মাধ্যমে তিনি ভর্তিচ্ছুদের কাছে অর্থের লেনদেন করতেন বলে তথ্য পেয়েছে পুলিশ। এমনকি এক ভর্তিচ্ছু টাকা দিতে না পেরে ওই নারীর কাছে মোটরসাইকেল বন্ধক রেখেছিল বলেও তথ্য রয়েছে পুলিশের কাছে। বেরোবিতে জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে। 

এদিকে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত সেই আন্টির পরিচয় কি এনিয়ে জল্পনা কল্পনা শুরু হয়েছে। সেই আন্টি কাদের ছত্রছায়ায় এমন জালিয়াতির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পুলিশ জানিয়েছে, কথিত সেই আন্টির নাম সেলিমা বেগম। তার বাসা রংপুর নগরীর খামার পাড়া মহল্লায়। সেখান থেকেই তিনি ভর্তি জালিয়াত চক্রের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন বলে অভিযোগ উঠেছে। 

জানা গেছে, রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে এসে রোববার ৬ শিক্ষার্থী আটক হয়েছেন। এছাড়া রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকেও সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়েছে। সোমবার তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। 
এর আগে আটককৃতরা পুলিশের কাছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানান, ভর্তি জালিয়াতির সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক, ২ ছাত্রলীগ নেতা ও বহিরাগত একজন নারী জড়িত। আটকরা জানান, জনপ্রতি ২ থেকে ৩লাখ টাকার বিনিময়ে ওই ভর্তি জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তির জন্য চুক্তিবদ্ধ হন। 

সহকারী প্রক্টর তাসনিম হুমাইদা গ্রেফতারকৃত ভর্তি পরীক্ষার্থী শামস বিন শাহরিয়ারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এ সময় ওই পরীক্ষার্থী ভর্তি জালিাতির সাথে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের নজরুল ইসলাম নামের একজন শিক্ষকের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। তিনি মোবাইলে আন্টি সম্বোধন করে একজনের সাথে কথা বলেছে। সেই কথোপকথনেও তিনি ড. নজরুল ইসলামের কথা বলেছে। তার অন্য কয়েকটি অডিও রেকর্ডসূত্রে জানা যায়, এই নিয়োগে অনেক টাকা লেনদেন হয়েছে। সব টাকা পরিশোধ করতে পারে নি বলে একটি মোটর সাইকেলও দিয়েছে টাকার পরিবর্তে।

স্বীকারোক্তিমূলক লিখিত জবানবন্দিতে এক ভর্তিচ্ছু জানান, বহিরাগত এক নারী যাকে তারা ‘আন্টি’ সম্বোধন করতেন তার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষকের যোগসাজসে ছাত্রলীগ নেতাদের মাধ্যমে টাকার লেনদেন হত।

ঢাকা, ১৮ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।