৭ দফা দাবিতে বিটেক শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন


Published: 2017-11-21 20:38:17 BdST, Updated: 2017-12-14 04:33:30 BdST


বিটেক লাইভ: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে প্রতিষ্ঠিত টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ (বিটেক) ক্যাম্পাস অনতিবিলম্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক স্ব-শরীরে এসে উদ্বোধনসহ ৭ দফা দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ-মিছিল কর্মসূচি পালন করেছে প্রতিষ্ঠানের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার সকালে ক্যাম্পাসের সামনে ঘন্টাব্যাপী এই কর্মসূচির আয়োজন করে। মানববন্ধনটি ক্যাম্পাসের ছয় দফা চত্বর, একাডেমিক ভবন, বিজয় একাত্তর থেকে মসজিদ পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে। পরে সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল করে পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে শিক্ষার্থীরা।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের ৭ দফা দাবিগুলো হলো- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে প্রতিষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ শিগগির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক স্ব-শরীরে এসে উদ্বোধন, শিক্ষার্থীদের যাতায়াত ব্যবস্থার জন্য ২টি বাস বরাদ্দ, আবাসন সংকট নিরসনে নতুন ছাত্র হল নির্মাণ, সার্বক্ষণিক নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ও বন্ধ সাবস্টেশন চালু, কোটি টাকা অর্থায়নে নির্মিত অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরি চালু, অপটিক্যাল ফাইবার দিয়ে বছর তিনেক আগে সম্পন্ন হওয়া সরকারি ওয়াই-ফাই সংযোগের সেবা চালুসহ অরক্ষিত ছাত্রী হলের সুরক্ষা নিশ্চিত করা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সোসাইটি অব বিটেক স্টুডেন্টস (এসবিএস) এর সভাপতি মো. আশরাফুল ইসলাম, সহ-সভাপতি শামীম হোসেন পান্না, ইমতিয়াজ আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক নিজামুল হক রনি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, নুরিস্তা পারভীন প্রমূখ।

জানা যায়, গত রোববার সন্ধ্যায় দ্রুতগামী পরিবহনে বিটেক শিক্ষার্থীরা টাঙ্গাইল শহর থেকে ক্যাম্পাসে আসার সময় লাঞ্ছিত হয়। এতে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা নিজেদের বাসের জন্য দাবি জানালে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তখন পূর্ণ আশ্বাস দেয়নি।

২য় বর্ষের শিক্ষার্থী আশরাফুল ইসলাম বলেন, "দীর্ঘ দশ বছর পার হয়ে গেলেও আমাদের ক্যাম্পাস কেন উদ্বোধন হচ্ছে না তার ধোঁয়াশা এখনো কাটছে না। প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন সেজন্যে পাঁচ বছর আগে নেমপ্লেট লাগানো হয়। কিন্তু এখনো হয়নি। উদ্বোধন না হওয়ায় আমরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি। যেকোন সমস্যায় প্রশাসনের দ্বারস্থ হলে উনারা অজুহাত দেখান বাজেট স্বল্পতার।"

মানববন্ধন শেষে শিক্ষার্থীরা প্রিন্সিপাল অফিস ঘেরাও করে। প্রিন্সিপাল ইঞ্জি. আব্দুল মজিদ শিক্ষার্থীদের দাবি-দাওয়া পূরণের আশ্বাস দেন এবং দুই সপ্তাহের সময় নেন। এসময় দুই সপ্তাহের মধ্যে দাবি পূরণ না করলে তীব্র আন্দোলনে যাবেন বলে ঘোষণা দেন প্রতিষ্ঠানের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।


ঢাকা, ২১ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।