সাংবাদিককে ঢাবির এসএম হল ভিপির হুমকি 'খবর করে দিব'


Published: 2020-02-23 23:38:13 BdST, Updated: 2020-04-07 11:57:28 BdST

ঢাবি লাইভঃ সাংবাদিকদের হুমকি দিলেন এসএম হলের ভিপি। বললেন, আমার বিরুদ্ধে নিউজ কেন? 'খবর করে দিব' এভাবেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক প্রতিনিধিকে হুমকি দিয়েছেন সলিমুল্লাহ মুসলিম (এসএম) হল ছাত্র সংসদের ভিপি এম এম কামাল উদ্দিন। সংশ্লিষ্ট সাংবাদিক ওই হুমকির ফোনালাপ রেকর্ড করেছেন।

গতকাল দুই প্রাক্তন শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের ঘটনায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ায় খেপেছেন এস এম হল সংসদের ভিপি কামাল। তবে, ভিপি এম এম কামাল উদ্দিন এসব কিছু অস্বীকার করেছেন। বলেছেন, না তো আমি এমনটি বলিনি। কামাল সলিমুল্লাহ মুসলিম হল ছাত্রলীগের সহসভাপতি। আর ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের অনুসারী।

রবিবার দুপুরে একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিবেদক শাহীন রহমান আরফিন ‘ফুলার রোডে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই জন প্রাক্তন শিক্ষার্থীকে মারধর করাসহ একাধিক অভিযোগের বিষয়ে কামাল উদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে কথা বলার সময় তিনি এ হুমকি দেন বলে অভিযোগ করেন ওই সাংবাদিক।

এর আগে গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুলার রোডে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই প্রাক্তন শিক্ষার্থীসহ তিনজনকে নির্যাতন করে আলোচনায় আসেন ভিপি কামাল উদ্দিন। নির্যাতন থেকে শিক্ষার্থীদের বাঁচাতে গেলে প্রক্টরিয়াল টিমের ওপর চড়াও হয় কামাল উদ্দিনের অনুসারীরা। এতে প্রক্টরিয়াল টিমের চারজন সদস্য আহত হয়েছেন বলেও জানা যায়।

পরে তারা গতকাল শনিবার সন্ধায় বহিরাগতমুক্ত ক্যাম্পাসের দাবিতে ফুলার রোড অবরোধ করে মানববন্ধন করেন। এসব বিষয়ে কথা বলতে ওই সাংবাদিক কামালকে আজ (রবিবার) আবার ফোন করলে তিনি হুমকি দেন।

কামাল উদ্দিনের সাথে সেই সাংবাদিকের কথোপকথনের অডিওটি সংরক্ষিত আছে।

অডিওটিতে শোনা যায় কামাল উদ্দিন সাংবাদিককে বলছেন, ‘মানুষকে ক্লিয়ার করার মতো কিছু আমার নাই। ঠিক আছে? যদি কথা বলতে হয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আছে, হল প্রশাসন আছে তাদেরকে নিয়ে সবার সাথে কথা হবে। কালকে তোমার সাথে কথা হয়েছে। কালকের (ফুলার রোডে শিক্ষার্থীদের উপর নির্যাতন) যে ঘটনা তুমি ওই বিষয়টা নিয়ে আছো। কালকে যে এতো বড় একটা মানববন্ধন হয়েছে। সেটা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই।’

‘‘তুমি কি আজকে নিউজ করছো? কি নিউজ করছো? উল্টা-পাল্টা যদি কোনো নিউজ হয়, তোমরা সাংবাদিক যারা আছো, তাদের খবর আছে। উল্টা-পাল্টা কোনো নিউজ কইরো না। এতোটুকু বলে দিচ্ছি।’’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হুমকির দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন কামাল উদ্দিন।

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ কে তিনি বলেন, 'তার (সাংবাদিক) যে অভিযোগ আমি তাকে 'খবর করে দিব' হুমকি দিছি আমি তাকে সেটা বলিনি। আমি বলিছি তুমি যে আমার নামে ফেইক নিউজ করেছ আমি সেটার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিব।

একজন সাধারণ শিক্ষার্থী হিসেবে বা একজন ছাত্র প্রতিনিধি হিসেবে আমার নামে ফেইক নিউজ করে বা তার লিগ্যাসি (সততা) জায়গা থেকে সরে যায় আমি তার প্রতিবাদ জানাতেই পারি। এর মানে যদি এই হয় যে তাকে হুমকি দেওয়া। হুমকি দেওয়া তখন হতো আমি যদি তাকে ফোন দিয়ে বলতাম আমি তোমাকে দেখে নিব বরং সে আমাকে ফোন দিছে।'

এছাড়াও তার নেতৃত্বে হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে তিনি বলেন, 'আমি তাদেরকে (হামলার শিকার হওয়া রানা নাসের) বাঁচাতে গিয়েছিলাম। ব্রিটিশ কাউন্সিলের সিসিটিভি ফুটেজ দেখলে বুঝতে পারবে কার ভুমিকা কী ছিলো।'

এর আগেও হলের দুইজন শিক্ষার্থীকে সিট থেকে পিটিয়ে নামিয়ে দেওয়া, ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর ও সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন, বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের ওপর ডিম নিক্ষেপ ও লাঞ্ছিত করায় জড়িত থাকাসহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে কামাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে। এসব ঘটনায় একাধিক সংবাদ মাধ্যমে খবরও প্রকাশিত হয়েছে।

ঢাকা, ২৩ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।