সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় গেলে ঢাবিতে আন্দোলনের ঘোষণা রাব্বানীর


Published: 2020-02-13 16:41:44 BdST, Updated: 2020-02-26 00:48:36 BdST

মো.মনিরুজ্জামান; ঢাবিঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ঐতিহ্য ও স্বকিয়তা রক্ষার্থে আমরা গুচ্ছ পরিক্ষার বিপক্ষে অবস্থান করছি। গত ৮ ফেব্রুয়ারি ডাকসুর নির্বাহী সভায়ও এ বিষয়ে আলোচনা করে গুচ্ছ পরিক্ষায় না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। বিশ্ববিদ্যালয় যদি গুচ্ছ পরিক্ষায় যায় তাহলে আমরা এর প্রতিবাদে কর্মসূচি দিব।

ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে কমিশনে অনুষ্ঠিত এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরিক্ষার সিদ্ধান্তের পর ক্যাম্পাস লাইভের একান্ত সাক্ষাৎকারে একথা বলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের(ডাকসু) জিএস গোলাম রাব্বানী। যদিও এ বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ মতামত দেয়নি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট।

এ সম্পর্কে ডাকসুর এজিএস সাদ্দাম হোসেন তার ফেসবুক স্টাটাসে বলেন, সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের স্বার্থ, উৎকর্ষতা, আগামীদিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার রুপকল্পের সাথে সাংঘর্ষিক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ-১৯৭৩ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের গণতান্ত্রিক, স্বায়ত্তশাসিত এবং পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গড়ার জন্য ঐতিহাসিক দায়বদ্ধতার বহিঃপ্রকাশ। এ বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনার জন্য ১৯৬১ সালের কালাকানুন বাতিলের জন্য এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা লড়াই-সংগ্রাম করেছে, বঙ্গবন্ধু তাই স্বাধীনতার পরপরই উপহার দিয়েছেন এ আইন ।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং ইউজিসির উদ্যোগে ইতোমধ্যেই কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, অনেকগুলো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেয়ায় পরীক্ষার সংখ্যা কমে এসেছে বা একটা পরিকল্পিত প্রক্রিয়ার মধ্যে এসেছে। কিন্তু গণতান্ত্রিক বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিজেদের সিদ্ধান্ত নিজেরাই নেবে এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ২য় সংস্করণের মাধ্যমে এই বিশ্ববিদ্যালয় তার ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারে না।

আমাদের নিজেদের একাডেমিক মান রক্ষা, বিষয়ের বৈচিত্র্যের ভারসাম্যের নিশ্চয়তা, শিক্ষার্থী বেছে নেয়ার স্বাধীনতা, জনগণের প্রত্যাশা পূরণের ঐতিহ্যিক অঙ্গীকার, শতভাগ মেধাভিত্তিক ও দুর্নীতিমুক্ত ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার দায় থেকে আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার বিপক্ষে। প্রত্যাশা থাকবে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার বিপক্ষে অবস্থান নেবে এবং নিজেদের স্বকীয়তা, স্বাধীনতা, স্বায়ত্তশাসনে অবিচল থাকবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জয় হোক।

ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার পক্ষে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি লাঘব এবং অর্থের অপচয় রোধ করাকে যৌক্তিক বলে মনে হলেও বর্তমানের বাস্তবতায় এই সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করছি। তিনি বলেন, সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা সমন্বিত দুর্ণীতির সম্ভাবনা তৈরী করবে। তাছাড়াও মানহীন প্রশ্নপত্র ও প্রশ্নফাঁসের সম্ভাবনাও আছে।

তিনি বলেন, বিশেষকরে এটি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারনার পরিপন্থী। গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরিক্ষা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্বকিয়তা নষ্ট করবে বলে আমি মনে করি।

এ সম্পর্কে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট যদি ইউজিসির সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়ে গুচ্ছ পরিক্ষায় অংশগ্রহণ করে তাহলে আমরা তা মেনে নিবো। কারণ আমরা যদি এটাকে একটা পদ্ধতির মধ্যে দিয়ে সুন্দরভাবে পরিচালিত করতে পারি তাহলে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি লাঘব এবং অর্থের অপচয় রোধ হবে বলে আমি মনে করি।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পরিক্ষা গুচ্ছ পদ্ধতিতে নেয়া যেতে পারে। তবে দেশে যে চারটি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান রয়েছে তাদের স্বকিয়তা রক্ষার্থে এ চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিক্ষা একসাথে নেয়া যেতে পারে।

ঢাকা, ১৩ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।