ঢাবি 'শিক্ষকদের' অপদার্থ বললেন ভিপি নুর (ভিডিও)


Published: 2020-01-23 23:02:12 BdST, Updated: 2020-09-19 18:50:47 BdST

ঢাবি লাইভঃ বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো ছাত্রলীগের হাতে ছেড়ে দেওয়া, শিক্ষকদের লেজুড়বৃত্তিক রাজনীতি চর্চ্চা, ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে বলে বিবৃতি দেওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের 'শিক্ষকদের' অপদার্থ বললেন ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের ৩৫ তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রসমাবেশে এমন মন্তব্য করেন ভিপি নুর।

তিনি বলেন, বিশ্ববাসী যখন এই নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করেছে তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা সেই নির্বাচনকে অভিনন্দন জানায়। প্রভোস্ট, প্রক্টর, ভিসি, প্রো- ভিসি হওয়ার জন্য ভোটারবিহীন নির্বাচনে বিবৃতি দেন যে এটি একটি অভূতপূর্ব বিজয় হয়েছে। সরকারকে অভিনন্দন জানায়। ছিঃ ধিক্কার জানাই আপনাদের। জহুরুল হক হলে ৪ জন ছাত্রকে ছাত্রলীগ নির্যাতন করে তখন ঐ হলের শিক্ষক আমি বলি যে অপদার্থ শিক্ষক তাদের পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে।

তিনি বলেন, আমার কথায় কিছু শিক্ষক কষ্ট পেলে করজোড় করে ক্ষমা চাই। আমার অনেক শ্রদ্ধাবাজন শিক্ষক আছেন যাদের দেখলে ডাকসু'র ভিপি হয়েও মাথা নিচু করে সালাম দিয়ে এগিয়ে যায়। আর কিছু শিক্ষক আছে যাদের দেখলে কথা বলতেও ইচ্ছে করে না।

তিনি বলেন, প্রশাসন ছাত্রলীগকে হল চালানোর লাইসেন্স দিয়ে দিয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক তো তারা, লজ্জিত যহয় যে তারা শিক্ষক কি না। হলের হাউস টিউটর, প্রভোস্ট, একেকজন প্রভোস্ট বাংলোতে থাকে হল চালায় ছাত্রলীগ, ওই মিয়া আপনারা আছেন কিসের জন্য। পাবলিকের টাকা নিচ্ছেন লজ্জা করেনা, আপানাদের ছেলেমেয়েকে খাওয়াচ্ছেন পড়াশোনা করাচ্ছেন এটা হারাম। পাবলিক ভ্যাট দেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য কাজ করতে আর আপনারা লেজুড়বৃত্তি করতেছেন।

ভিডিও দেখতে লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন: https://www.facebook.com/Campuslive24/videos/111624983578379/

তিনি আরো বলেন, কিছু শিক্ষক আছে তারা উস্কে দেয় ডাকসুতে হামল করো, তারা বিরুদ্ধ মত তাদের দমন করতে হবে। আর কিছু শিক্ষক আছেন যেমন অর্থনীতি বিভাগের রুশাদ ফরিদী স্যার। ডাকসুর ঘটনায় তিনি আমাদের রক্ষা করতে গিয়েছেন। ওনার সামনে কয়েকজনকে মারতে চেয়েছিল ওনি রিক্সায় তুলে দিয়েছন। শহীদ মিনারের সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় তানজীম স্যারকে ছাত্রলীগ লাঞ্ছিত করেছে তখন ভয়ংকর মানুষ প্রক্টর তার সহকর্মীদের বিরুদ্ধে হামলার কোন ব্যবস্থা নেননি।

ডাকসুতে হামলার সময় তিনি অফিসে ছিলেন। তাকে যখন জানানো হয় যে ভিপিকে তো মেরে পেলবে তখন তিনি সাদ্দাম কে কল দিয়ে বলে কী হয়েছে দেখতে আর সাদ্দাম আমাদের উপর হামলার নেতৃত্ব দিয়েছে। চিন্তা করতে পারেন দেশের অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন অবস্থা।

তখন তিনি ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ারও আহ্বান জানায়।

সমবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের প্রফেসর সামিনা লুৎফা, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকি, ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।