৯বছর পর বশেমুরবিপ্রবিতে নির্মিত হলো শহীদ মিনার


Published: 2019-12-14 15:42:25 BdST, Updated: 2020-01-26 21:19:20 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভ: বঙ্গবন্ধুর জন্মভূমি গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) দীর্ঘ ৯ বছর পরে নির্মিত হয়েছে কংক্রিটের তৈরি শহীদ মিনার। এই শহীদ মিনার নির্মাণের আগে কাঠের তৈরি একটি নড়বড়ে অস্থায়ী শহীদ মিনারেই বাঙালি জাতির জাতীয় শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতো বশেমুরবিপ্রবিয়ানরা।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল (১১নভেম্বর) এর আঘাতে কাঠের তৈরি শহীদ মিনারটি ভেঙে যাওয়ায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবসকে সম্মানের সঙ্গে পালন করার জন্যেই মাত্র ৭ দিনেই তৈরি করা হয়েছে এশহীদ মিনার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মো: শাহজাহান ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, "বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার প্লানে যে শহীদ মিনারটির নকশা রয়েছে সেটির নির্মাণ কাজ আরো পরে শুরু হবে। আপাতত শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের উদ্দেশ্যে স্বল্প সময়ে এই শহীদ মিনারটি নির্মাণ করা হয়েছে।"

বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মানুযায়ী চলতি ভারপ্রাপ্ত ভিসির টেন্ডার প্রদানের ক্ষমতা না থাকায় এবং শহীদ মিনার জাতীয় চেতনার প্রতীক বহন করায় স্বল্প সময়ে শহীদ মিনার নির্মাণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে অত্যন্ত প্রশংসার দাবিদার রাখেন তিনি।

এদিকে শহীদ মিনার নির্মিত হওয়ায় আনন্দোচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মনোজিত আউলিয়া বলেন, " দীর্ঘ ৯বছর পরে বঙ্গবন্ধুর নামাঙ্কিত বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ হওয়ায় ৫৫ একরের ১২হাজার শিক্ষার্থী সত্যি গর্বিত। আমরা প্রশাসনের এমন মহৎ কর্মোদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই।"

ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী জাহাঙ্গীর আলম ক্যাম্পাসলাইভকে জানান," সদিচ্ছা থাকলে সবই সম্ভব। খুবই অল্প সময়ে এমন একটি উপহার (শহীদ মিনার) অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে। শিক্ষার্থীদের সবগুলো চাহিদা অতিদ্রুত পূরণ হোক সেই চাওয়াটাই রইলো প্রশাসনের কাছে।"

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয়টির সাবেক ভিসি খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের সময়কালে শহীদ মিনারের নির্মাণ কাজ শুরু না করেও মাস্টার প্ল্যান নকশার শহীদ মিনার ২০১৫ সাল থেকে নির্মাণাধীন দেখানো হয়। কিন্ত টেন্ডার প্রদানের আগেই ২০১৮ সাল পর্যন্ত এর খরচ ব্যয় প্রায় ১কোটি ৬৩ লক্ষ টাকা দেখানো হয়েছিলো। যা সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে চরম প্রতারণা এবং বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি চরমভাবে নষ্ট হয়।

ঢাকা, ১৪ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।