বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৩ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার


Published: 2019-11-18 18:02:52 BdST, Updated: 2019-12-07 05:00:48 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভ: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ১৩ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছে। ভিসির পদত্যাগের দাবিতে চলমান আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের উপর হামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচ শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার ও এক শিক্ষাথীকে দুই সেমিস্টার বহিষ্কার করা হয়। অপর দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার সময় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে সাত শিক্ষার্থীকে দুই সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নূর উদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত দুটি চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ২১ সেপ্টেম্বর সাবেক ভিসি ভিসি ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিনের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই হামলার সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের পাঁচ শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। একই বিভাগের অপর এক শিক্ষার্থীকে দুই সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা বোর্ড।

স্থায়ী একাডেমিক বহিষ্কৃত পাঁচ শিক্ষার্থী হলেন, ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগ ৪র্থ বর্ষের রাফিজুল ইসলাম, নূরুদ্দিন নাহিদ, স্নাতকোত্তর শ্রেণির আরিফুল ইসলাম সাকিব, ৩য় বর্ষের মো. মাজহারুল ইসলাম মিশন ও ২য় বর্ষের রাহাত আল আহসান। এছাড়া একই ঘটনায় বিভাগটির ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী ইসমাইল শেখকে দুই সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

দ্বিতীয় চিঠিতে বলা হয়, গত ৯ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার পূর্বে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এক অভিযানে প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার ঘটনায় একটি চক্রকে আটক করা হয়। চক্রটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত শিক্ষার্থীকে একাডেমিক কার্যক্রম থেকে দুই সেমিস্টার (জুলাই ২০১৯ - জুন ২০২০) বহিষ্কার ও হল থেকে আজীবন বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা বোর্ড।

বহিষ্কৃত সাত শিক্ষার্থী হলেন, অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম (এআইএস) বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থী বাবুল শিকদার বাবু, ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগ ৩য় বর্ষের মো. নয়ন খান, নিয়ামুল ইসলান, মনিমুল হক, আইন বিভাগ ৩য় বর্ষের অমিত গাইন, ২য় বর্ষের মানিক মজুমদার ও সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ ২য় বর্ষের রনি খান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নূর উদ্দিন আহমেদ বলেন, গত ২১ সেপ্টেম্বর সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় পুনরায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী এবং ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন সংক্রান্ত প্রতারণার দায়ে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দুটি পৃথক ঘটনায় মোট ১৩ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা বোর্ড।

ঢাকা, ১৮ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।