১৭ দফা দাবি আদায়ে উত্তাল বশেমুরবিপ্রবি (ভিডিও)


Published: 2019-11-05 19:36:55 BdST, Updated: 2019-12-10 21:57:11 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) আবারও দাবি নিয়ে আন্দোলনে নেমেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

১৭ দফা দাবিকে সামনে রেখে মঙ্গলবার সকাল ৯টায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ৷

শিক্ষার্থীরা জানান, সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের দায়িত্ব পালন করার সময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মাত্রারিক্ত হল ভাড়া, ক্রেডিট ফি, চিকিৎসা ফি আদায় করেছে এবং সেই ধারা অব্যাহত রয়েছে।

এই মাত্রারিক্ত ফি কমানো ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের দাবিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করেছে।

শিক্ষার্থীদের ১৭টি দাবি হলো:
১. বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল, শহীদ মিনার এবং প্রধান ফটকের নির্মান কাজ অতিদ্রুত শুরু করতে হবে।
২. আবাসিক হলে প্রতি সিটের ভাড়া ১৫০ টাকা এবং গণরুমের ভাড়া ২৫ টাকা করতে হবে।

৩. বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি ফি সর্বোচ্চ ১২০০০ টাকা এবং সেমিস্টার ফি ২০০০ টাকা করা লাগবে।
৪. ক্লাসে উপস্থিতি কম থাকলে শিক্ষার্থী উপস্থিতির নাম্বার পাবে না, কিন্তু তাকে পরীক্ষায় বসতে দিতে হবে।

৫. প্রতি সেমিস্টারে বেতন বাবদ ১২০০ টাকা থেকে কমিয়ে ৬০০ টাকা করতে হবে।
৬. শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস নয়, ক্যাম্পাসের বাইরেও শিক্ষার্থীর নিরাপত্তার দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকেই নিতে হবে।

৭. বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় (২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষ থেকে) সকল বিভাগে সর্বোচ্চ আসন সংখ্যা ৫০ করতে হবে।
৮. বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ অত্যন্ত দ্রুত এবং ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে পানি পানের সুব্যবস্থা থাকতে হবে।

৯. বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের আয়তন ৫৫ একর নয়, ১৫০ একর করতে হবে।
১০. শিক্ষার্থীদের প্রতি শিক্ষকের ব্যক্তিগত ক্ষোভ যেন একাডেমিক প্রভাব না ফেলে, শিক্ষকদেরও আইনের আওতায় আনতে হবে।

১১. সেমিস্টার ফি প্রতি ক্রেডিট ১০০ টাকা নয়, ৫০ টাকা করতে হবে।
১২. যেসব বিভাগে কম্পিউটার নেই তারা প্রতি সেমিস্টারে কম্পিউটার বাবদ ২৫০ টাকা দিবে না।

১৩. যেহুতু আমাদের ছাত্রসংসদ নেই, তাই আমরা কোনো টাকা দিবো না এবং পুর্বের টাকার হিসাব দিতে হবে।
১৪. স্টুডেন্ট কমনরুম নেই। কমন রুমের টাকা দেব না এবং পূর্বের টাকার হিসাব দিতে হবে।

১৫. ক্যাফেটেরিয়া, অডিটোরিয়াম এবং অ্যাম্পিথিয়েটারের নির্মাণ কাজ দ্রুত শুরু করতে হবে।
১৬. বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব চিকিৎসা ভবন করতে হবে। চিকিৎসা ফি ২২৫ টাকা নয়, ১০০ টাকা করতে হবে।
১৭. প্রতি সেমিস্টারে বাস ভাড়া ৩০০ টাকা করতে হবে এবং ছাত্র কল্যাণ বাবদ ৫০ টাকা করতে হবে।

ভিডিও: https://www.facebook.com/Campuslive24/videos/2138374879790064/

আন্দোলরত বাংলা বিভাগের এক শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ-আল-রাজু বলেন, শিক্ষা কোনো পণ্য নয় যে টাকা দিয়ে কিনতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যয় আসে দেশের সকল মানুষের কর থেকে। আমরা শোষণের শিকল ভেঙ্গে স্বৈরচারী খোন্দকার নাসিরউদ্দিনকে তাড়িয়েছি। আর কোনো অন্যায়ের সাথে আপোস নয়। আমরা আর কোনো অতিরিক্ত ফি দেব না। আমাদের দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা এই অবস্থান কর্মসূচি পালন করে যাবো।

উল্লেখ্য, গত ৩ নভেম্বর সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ১৭ দফা দাবির স্মারকলিপি প্রশাসনের কাছে প্রদান করা হয় এবং আজ তারা আন্দোলনে ডাক দেন।

ঢাকা, ০৫ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।