ডেটিংয়ে ধর্ষণে অজ্ঞান ছাত্রী, স্বর্ণালংকার নিয়ে পালালো বয়ফ্রেন্ড!


Published: 2019-10-19 02:14:26 BdST, Updated: 2019-11-13 07:39:13 BdST

মানিকগঞ্জ লাইভ : ছাত্রীকে ডেটিংয়ে ডেকে নিয়ে সর্বনাশ করে দিয়েছে বয়ফ্রেন্ড। এসময় ওই ছাত্রী অজ্ঞান হয়ে পড়লে স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায় কথিত ওই বয়ফ্রেন্ড। মানিকঞ্জের ঘিওর উপজেলায় ওই ঘটনায় অসুস্থ ছাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই ছাত্রী সদর উপজেলার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। প্রায় এক বছর ধরে বিদ্যালয়ে যাওয়ার-আসার পথে ওই ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করতেন সদর উপজেলার গড়পাড়া ইউনিয়নের আলীনগর গ্রামের বখাটে জাবেদ হোসেন। এক পর্যায়ে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত বৃহস্পতিবার রাতে বিয়ে করার কথা বলে জাবেদ ওই ছাত্রীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যান। নির্জনে নিয়ে ধর্ষণের একপর্যায়ে ওই ছাত্রী অজ্ঞান হয়ে যায়। এসময় তার কাছে থাকা স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায় কথিত ওই বয়ফ্রেন্ড। শুক্রবার ঘিওর উপজেলার বানিয়াজুরী এলাকা থেকে পরিবারের লোকজন ওই ছাত্রী কে উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ওই ছাত্রীর মা জানান, প্রায় মাস আগে সাটুরিয়া উপজেলার চরতিল্লী গ্রামের এক যুবকের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে দেন। গত ২ অক্টোবর স্বামী কুয়েত চলে যাওয়ায় মেয়েকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। শনিবার রাত আটটার পর থেকে তাঁর মেয়ে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে শুক্রবার বানিয়াজুরী এলাকায় তার মেয়েকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

তিনি অভিযোগ করেন, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাঁর মেয়েকে জাবেদ ধর্ষণ করেছে। এরপর মেয়ের সঙ্গে থাকা স্বর্ণালংকার নিয়ে জাবেদ পালিয়ে গেছেন।

ঘিওর থানার ওসি আশরাফুল আলম বলেন, এ বিষয়টি আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে আইনানু ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ঢাকা, ১৯ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।