নার্সের ভুল ইনজেকশন পুশ : মৃত্যুর পথে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!


Published: 2019-05-21 17:37:18 BdST, Updated: 2019-06-19 15:26:10 BdST

গোপালগঞ্জ লাইভ: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) এক ছাত্রী নার্সের ভুল চিকিৎসার শিকার হয়েছেন। ভুল ইনজেকশন পুশ করায় মরিয়ম সুলতানা মুন্নী নামে ওই ছাত্রী এখন জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন। তিনি সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী।

মঙ্গলবার সকালে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে সার্জারি ওয়ার্ডে ওই ঘটনা ঘটে। পরে সংকটাপন্ন অবস্থায় ওই ছাত্রীকে খুলনা শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মুন্নী গোপালগঞ্জ সদরের চন্দ্রদিঘলীয়া গ্রামের মোশারফ বিশ্বাসের মেয়ে।

জানা গেছে, মরিয়ম সুলতানা মুন্নী পিত্তথলীতে সমস্যয় ভুগছিলেন। তিনি শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডাঃ আব্দুল মতিনের তত্ত্বাবধানে ওই বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর ডাঃ তপন মন্ডলের কাছে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

সোমবার রাতে হাসপাতালে মুন্নীর পোস্ট এনেস্টিক একটিভিটি সম্পন্ন করা হয়। মঙ্গলবার সকালে তার অপারেশন করার কথা ছিল। সে অনুযায়ি হাসপাতালের ফিমেল ওয়ার্ডের সিনিয়র স্টাফ নার্স শাহনাজ সকালে রোগীর ফাইল ভাল করে না দেখে গ্যাসট্রাইটিসের ইনজেকশন সারজেলের পরিবর্তে এনেস্টোসিয়ার (অজ্ঞান কারার) ইনজেকশন সারভেক ওই রোগীর শরীরে পুশ করে। এতে সাথেসাথে মুন্নী জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

পরে রোগীর অবস্থা দ্রুত অবনতির দিকে চলে যাওয়ায় পরিস্থিতি সামাল দিতে ডাক্তার তাকে খুলনা আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে তাকে রেফার করেন।

গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের উপ পরিচালক চৌধূরী ডাঃ ফরিদুল ইসলাম, চৌধুরী বলেন, এ ব্যপারে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।


ঢাকা, ২১ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।