জাবিতে নবজাতকের মৃত্যুতে অনুতপ্ত ওরা, ‘মেয়েকেটাকে বাঁচতে দিন’


Published: 2019-03-19 13:50:42 BdST, Updated: 2019-06-25 18:22:24 BdST

জাবি লাইভ : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ছাত্রীহলে সন্তান প্রসব ও পরে ওই শিশুর মৃত্যু নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে নানা কটূ মন্তব্যে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের সেই ছাত্রী। অনাকাঙ্খিত ওই ঘটনায় অনুতপ্ত ওই সন্তানের জন্ম দেয়া বাবা-মা। তারা দুইজনই জাবির শিক্ষার্থী। বিষয়টিকে মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে বিবেচনা করার আহবান জানিয়েছেন ওই সন্তানের বাবা রনি মোল্লা। অন্যদিকে ওই ছাত্রীর মা বিষয়টি নিয়ে লজ্জায় পড়েছেন। তারা সামাজিকভাবে প্রচণ্ড হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছেন। এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে চান তিনি। মেয়েকে সুস্থ পরিবেশে বাঁচিয়ে রাখার আকুতি করেন তিনি।

ওই ছাত্রীর বয়ফ্রেন্ড রনি মোল্লা বলেন, আমরা বিবাহিত। দীর্ঘ প্রেমের পর আমরা বিয়ে করেছি। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার কিছুদিন পরে আমার মাকে জানিয়ে ২০১৭ সালের ৮ এপ্রিল আমরা বিয়ে করি। মৃত্যুর সনদে নবজাতকটির ‘স্বাভাবিক মৃত্যু’ হয়েছে বলে উল্লেখ হয়েছে। এতে ছাত্রীর বাবা স্বাক্ষর করে নবজাতকের লাশ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির উপস্থিতিতে গ্রহণ করেছেন। সুতরাং সন্তানের মারা যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে কেউ যেন বাজে মন্তব্য না করেন এমন দাবি করেন তিনি।

রনি মোল্লা বলেন, গোপনে বিয়ে করায় বিষয়টি কেউ জানতো না। ওর ফাইনাল পরীক্ষা চলছিল তাই হলে রাখতে বাধ্য হয়েছি তাকে। এরই মাঝে হঠাৎ প্রসব বেদনা ওঠায় ও বুঝতে পারছিল না কি করা উচিৎ। ও একটা ভুল করে ফেলেছে। এর জন্য ও ভীষণভাবে অনুতপ্ত। সে এখন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। আশা করি আপনারা যারা ওকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করছেন তারা বিষয়টি বুঝতে পারবেন।

উল্লেখ্য, জাবির সেই ছাত্রীর ‘স্বামী’ পরিচয় দেয়া রনি মোল্লা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৩তম ব্যাচের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী। তিনি শহীদ সালাম বরকত হলের আবাসিক ছাত্র। তাদের উভয়ের বাড়িও পাবনা জেলায়। দু'জনই পাবনার শহীদ সরকারি বুলবুল কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করে জাবিতে ভর্তি হয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। তবে জাবির হলে সন্তান জন্ম ও পরে মৃত্যুর ঘটনা ঘটার পর থেকে রনি মোল্লা ওই ছাত্রীর স্বামী বলে দাবি করছেন। ওই দাবিতে তিনি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মন্তব্যও করেছেন।

ঢাকা, ১৯ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।