কাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বাত্মক ছাত্র ধর্মঘট


Published: 2019-03-11 14:03:19 BdST, Updated: 2019-03-26 19:01:51 BdST

ঢাবি লাইভ : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির প্রতিবাদে সর্বাত্মক ছাত্র ধর্মঘট ডাকা হয়েছে। একই সঙ্গে নির্বাচন বর্জনেরও ঘোষণা দেয়া হয়েছে। বাম জোট, স্বতন্ত্র প্যানেলসহ কোটা সংস্কার আন্দোলনের প্রার্থীরা এমন ঘোষণা দিয়েছেন। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বাত্মক ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন।

সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।সংবাদ সম্মেলনে প্রগতিশীল ছাত্র জোট ও সাম্রাজ্যবাদবিরোধী ছাত্র ঐক্য সমর্থিত বামজোটের প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি (ভিপি) পদের প্রার্থী ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী, স্বতন্ত্র সাধারণ সম্পাদক (জিএস) প্রার্থী এ আর এম আসিফুর রহমান, জিএস পদে কোটা সংস্কারপন্থীদের প্রার্থী মুহাম্মদ রাশেদ খানসহ বেশ কয়েকজন প্রার্থী উপস্থিত রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন বাম জোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী। তিনি বলেন, আমরা ডাকসু নির্বাচনে স্বচ্ছ ব্যালট বাক্সের দাবি জানিয়েছিলাম। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলেছিল তাদের উপর আস্থা রাখতে। এই হলো আস্থা রাখার নমুনা। কুয়েত মৈত্রী হলে বস্তাভর্তি সিলমারা ব্যালট পাওয়া গেছে। রোকেয়া হলে ব্যালট বাক্স সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

মুহসীন হলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। ছাত্রহলগুলোতে ছাত্রলীগ ভোট দিয়ে আবার লাইনে এসে দাঁড়াচ্ছে। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ভোট দিতে পারছে না। এসব বিষয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দেখেও না দেখার ভান করছে। তাই আমরা ডাকসু নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করছি। সেই সঙ্গে পুনরাই তফসিল দিয়ে স্বচ্ছ ব্যালট বাক্সে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি।


ঢাকা, ১১ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।