ভিকারুননিসা শিক্ষকদের মানবিক আচরণ চাই, ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন


Published: 2018-12-05 10:41:21 BdST, Updated: 2018-12-11 00:47:16 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : ক্লাসে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকদের মানবিক আচরণের দাবিতে বিক্ষোভ করছেন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকাল থেকে তারা স্কুলের সামনে বিক্ষোভ করেন। এসময় তারা ভিকারুননিসার ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপালকে স্থায়ীভাবে প্রত্যাহারের দাবি করেন। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ ক্লাসে তাদের সঙ্গে শিক্ষকরা অমানবিক আচরণ করেন। সামান্য কারণে তাদের ডেকে নিয়ে অপমান অপদস্ত করা হয়। এমনকি অভিভাবকদের ডেকে নিয়েও অপমান করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে এমন অবস্থা চলে আসছে। নম্বর কম দেয়ার ভয়ে তাদের কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। এ অবস্থা থেকে মুক্তি চান শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

জানা গেছে, সোমবার দুপুরে রাজধানীর শান্তিনগরের নিজ বাসায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেয় অরিত্রি। মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অরিত্রির আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে তারা বাবা দিলীপ অধিকারী বলেছিলেন, অরিত্রির স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা চলছিল। রোববার সমাজবিজ্ঞান পরীক্ষা চলার সময় তার কাছে একটি মোবাইল ফোন পাওয়া যায়। এজন্য স্কুল কর্তৃপক্ষ আমাদের ডেকে পাঠায়। সোমবার স্কুলে গেলে স্কুল কর্তৃপক্ষ আমাদের জানায়, অরিত্রি মোবাইল ফোনে নকল করছিল, তাই তাকে বহিষ্কারের (টিসি) সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। স্কুল কর্তৃপক্ষ আমার মেয়ের সামনে আমাকে অনেক অপমান করে। এই অপমান এবং পরীক্ষা আর দিতে না পারার মানসিক আঘাত সইতে না পেরে সে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

এদিকে অরিত্রির আত্মহত্যার পর ভিকারুননিসার প্রিন্সিপাল হাসপাতালে গেলে তোপের মুখে পড়েন স্বজনদের। একপর্যায়ে তিনি পালিয়ে যান। মঙ্গলবার সকালে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদও ভিকারুননিসা স্কুলে গিয়ে ছাত্রীদের তোপের মুখে পড়েন। আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপালসহ ৩ শিক্ষকের নামে মামলা দেয়া হয়েছে।

ঢাকা, ০৫ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।