‘মেয়েকে নিয়ে প্রিন্সিপালের পায়ে ধরেছি, কান্নায়ও মন গলেনি’


Published: 2018-12-04 02:16:30 BdST, Updated: 2018-12-13 06:38:30 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : আমার মেয়ের বার্ষিক পরীক্ষা চলছিল। পরীক্ষার সময় মোবাইল নিয়ে গিয়েছে এই অপরাধে আমাকে ডেকে নিয়ে মেয়ের সামনেই অপমান করা হয়েছে। ভাইস প্রিন্সিপালের কাছে ক্ষমা চেয়েছি। তিনি সদয় হননি। প্রিন্সিপালের কাছে গিয়েও ক্ষমা চেয়েছি তিনিও সদয় হননি। মেয়েকে টিসি দেয়ার ব্যাপারে অনড় তারা।

আমার মেয়েও প্রিন্সিপালের পায়ে ধরে ক্ষমা চেয়েছে কারো মন গলেনি। পরের দিন টিসি নিয়ে আসতে বলা হয়। উপায় না দেখে এসময় আমি মেয়ের সামনেই কেঁদে ফেলি। ছোট আদরের মেয়ে আমার ওই কান্না ও অপমান মেনে নিতে পারেনি। বাসায় গিয়েও সব শেষ করে দিয়েছে। নিজের জীবন দিয়ে অপমান গুচানোর চেষ্টা করেছে। এভাবেই সেদিনের ঘটনার মর্মান্তিক বর্ণনা দিলেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রির বাবা দিলীপ অধিকারী। বাবার অপমান সইতে না পেরে অরিত্রি বাসায় গিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

অরিত্রির বাবার অভিযোগ, প্রিন্সিপাল তাদের অপমান করায় তার মেয়ে দ্রুত বাসায় চলে যায়। বাসায় ফিরে সে তার ঘরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয় এবং ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করে।

জানা গেছে, পরীক্ষায় মোবাইল নিয়ে যাওয়ার অপরাধে ছাত্রীর বাবাকে ডেকে নিয়ে অপমান করায় আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে ভিকারুননিসা নূন স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি। স্কুলের পক্ষ থেকে জানানো হয় অরিত্রি নকল করে ধরা পড়েছে তাই তাকে ছাড়পত্র দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এসব বিষয় নিয়ে মুষড়ে পড়ে ওই ছাত্রী। পরে সে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

জানা গেছে, সোমবার দুপুরে শান্তিনগরের ৭ তলার বাসায় অরিত্রি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরে তাকে উদ্ধার করে বিকাল ৪টার দিকে পরিবারের সদস্যরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
অরিত্রি অধিকারী ভিকারুন্নেসা স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। অরিত্রির ছোট বোন ঐন্দ্রিলা অধিকারীও একই স্কুলের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী। অরিত্রির বাবা দিলীপ অধিকারী একজন কাস্টসম (সিঅ্যান্ডএফ) ব্যবসায়ী। মা বিউটি অধিকারী গৃহিণী। পরিবারের সাথে রাজধানীর শান্তিনগরে থাকতো সে। তাদের গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী জেলায়।

পল্টন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আতাউর রহমান বলেন, সুরতহাল করে অরিত্রির লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে রাখা হয়েছে।

ঢাকা, ০৪ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।