পরীক্ষায় নকলে সহায়তা করায় শিক্ষককে কারাদন্ড


Published: 2018-11-08 19:47:50 BdST, Updated: 2018-11-14 11:16:56 BdST

গাজীপুর লাইভ: জেএসসি পরীক্ষার হলে নকলে সহায়তার অভিযোগে এক শিক্ষককে দুই বছরের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় দায়িত্বে অবহেলার জন্য অপর শিক্ষিকাকে আজীবন পরীক্ষা কেন্দ্রে নিষিদ্ধ করে এক শিক্ষার্থীকেও বহিস্কার করা হয়েছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব নাসির উদ্দিন ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, বৃহস্পতিবার গণিত পরীক্ষা চলছিল। কেন্দ্রের এক নং কক্ষে হেলাল উদ্দিন ও ফেরদৌসী বেগম পরীক্ষার দায়িত্ব পালন করছিল। পরীক্ষা শেষের কিছু পূর্বে ওই কক্ষে রুমা নামের এক ছাত্রী নকল করে পরীক্ষা দিচ্ছিল। এসময় শিক্ষক হেলাল উদ্দিন পাশে দাঁড়িয়ে তা দেখলেও নকল প্রতিরোধে কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

এসময় কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিনাত শারমিন ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, শিক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ ও নকলে সহায়তা করায় দুজন কক্ষ পরিদর্শককে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতে উপস্থাপন করা হয়েছে। এর মধ্যে শিক্ষক হেলাল উদ্দিনকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড, দুই হাজার টাকা জরিমানা ও শিক্ষিকা ফেরদৌসী আক্তারকে আজীবন কেন্দ্রে নিষিদ্ধ ও শিক্ষার্থী রুনাকে একবছরের জন্য বহিস্কার করা হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেহেনা আকতার ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, কেন্দ্রে নকল সরবরাহ করায় পাবলিক পরীক্ষা সমূহ অপরাধ আইন ১৯৮০ এর ৯ ধারা, মোতাবেক দন্ড প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বেলা পৌনে একটার দিকে শ্রীপুর পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। গণিত বিষয় পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে এক শিক্ষার্থীকে নকলে সহায়তা করার অভিযোগ পাওয়া যায়।

দন্ডপ্রাপ্ত শিক্ষক হেলাল উদ্দিন (৫৫) উপজেলা গোসিঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞান বিষয়ের সহকারী শিক্ষক। আজীবন পরীক্ষা কেন্দ্রে নিষিদ্ধ হওয়া ফেরদৌসী বেগম একই বিদ্যালয়ের ইংরেজী বিষয়ের শিক্ষিকা। আর বহিস্কৃত শিক্ষার্থী রুনা খোঁজেখানি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

 


ঢাকা, ০৮ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

 

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।