গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভুয়া ছাত্র শনাক্ত


Published: 2018-09-13 18:35:15 BdST, Updated: 2018-09-23 18:59:35 BdST

গণবি লাইভ: গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে (গণবি) ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের এক ভূয়া ছাত্রকে শনাক্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। মো: সোহাগ হোসেন নামের এক যুবক ক্যাম্পাসে নিজেকে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী হিসেবে পরিচয় দেয়। এঘটনা জানা জানি হলে তা তদন্তে বেরিয়ে আসে ভুয়া শিক্ষার্থী হিসেবে।

জানা গেছে, ভুয়া ওই ছাত্রের পিতা আ: জলিল, মাতা: মোসা: খাদিজা, গ্রাম: গোলবুনিয়া, উপজেলা: ভান্ডারিয়া, জেলা: পিরোজপুর। ক্যাম্পাসে এসে নিজেকে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের ২০১১-২০১২ শিক্ষাবর্ষের একজন উত্তীর্ণ ছাত্র পরিচয় দেয়।

পরে শিক্ষার্থীদের জানায় যে, সে পুলিশের এসআই পদে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। এখন মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সে জানায় যে তার ফলাফল আগে অনলাইনে পাওয়া যেত এখন পাওয়া যাচ্ছে না। পুলিশ বিভাগ থেকে অনলাইনে ভেরিফিকেশন করা হবে।

তার কাছে প্রাপ্ত মার্কস শীটের লেখা দেখে বিভাগীয় প্রধানের সন্দেহ তৈরি হয়। (গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে এপ্রিল ও অক্টোবর সেশন ব্যবহৃত হয়) মো: সোহাগ হোসেনের কাছে তার বিভাগের ব্যাচ নাম্বার ও পরীক্ষার আইডি নাম্বার জানতে চাওয়া হলে তা জানাতে ব্যর্থ হয়।

এছাড়া তার কাগজপত্র ভর্তি শাখা, রেজিস্ট্রেশন শাখা, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগ ও সর্বোপরি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখায় পরীক্ষা করে দেখা যায় যে তার টেস্টিমোনিয়াল, মার্কশিট, প্রভিশনাল সার্টিফিকেট, প্রত্যয়নপত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ড সবই ভুয়া এবং কাগজপত্রে রেজিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকসহ যাদের স্বাক্ষর দেখানো হয়েছে সেগুলোও নকল এবং মূল স্বাক্ষরের সাথে কোন মিল নেই।

পরে এ বিষয়ে আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। জিডি নং ৬৯৭ তারিখ ৯.৯.২০১৮।

 

 

ঢাকা, ১৩ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।