নর্থসাউথ, ইস্টওয়েস্টসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ ছাত্র রিমান্ডে


Published: 2018-08-07 21:43:51 BdST, Updated: 2018-08-19 23:53:32 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি, ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি, আহসানুল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজি ও সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটিসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ ছাত্রকে ২ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে।

রামপুরায় আফতাবনগরে পুলিশের হামলা ও গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ দেখিয়ে করা মামলায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাদের আদালতে হাজির করা হলে ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

এদের মধ্যে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির ৪ শিক্ষার্থীর নাম জানা গেছে। তারা হলেন, বিবিএর ইকতিদার হোসেন অয়ন, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের নূর মোহাম্মদ, ফার্মেসির জাহিদুল ইসলাম অনিক ও সিএসইর সীমান্ত সরকার।

বাড্ডা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগে ওই শিক্ষার্থীদের আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার আদালতে হাজির করা হলে তাদের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়। ওসি জানান আটকদের মধ্যে নর্থসাউথ, ইস্টওয়েস্ট, সাউথইস্ট ও আহসানুল্লাহ ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী রয়েছেন।

জানা গেছে, সোমবার আফতাবনগরে ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়েছে। এসময় ছাত্রলীগ ও শ্রমিকলীগের নেতাকর্মীরাও হামলায় অংশ নেয়। একপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাপক ভাংচুর করা হয়। পুলিশের দাবি সংঘর্ষের সময় ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির সঙ্গে অন্যান্য ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরাও অংশ নেয়।

এদিকে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের অভিযোগ সোমবার ওই শিক্ষার্থীরা বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। এসময় পুলিশ এসে তাদের পরিচয় জানতে চায়।

এসময় তারা নিজেদের ছাত্র পরিচয় দিলে পুলিশ তাদের গাড়িতে তুলে থানায় নিয়ে যায়। তারা আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত নয় জানিয়েও কোন কাজ হয়নি। পরে তাদের বাড্ডা থানার মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে অভিযোগ তাদের।

 

ঢাকা, ০৭ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।