‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বহিরাগতদের নিয়ে অপপ্রচার চলছে’


Published: 2018-07-23 17:08:56 BdST, Updated: 2018-12-19 20:45:23 BdST

ঢাবি লাইভ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ভিসি অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন বহিরাগতদের প্রবেশ নিয়ে ‘অপপ্রচার’ চালানো হয়েছে। এটা কখনও কাম্য ছিল না। আমরা এ ধরনের কোন কথা বলিনি বলে অভিযোগ করেছেন ভিসি ।

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে এক পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এই অভিযোগ করেন।

আখতারুজ্জামান বলেন, অপপ্রচারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের, তরুণদের উত্তেজিত করার একটি অপপ্রয়াস চালানো হয়েছে।

আমি একটা কথা পরিষ্কার করে বলতে চাই, জঙ্গি মতাদর্শে বিশ্বাসী মানুষ, চরমভাবাপন্ন মানুষ, মাদকসেবী ও স্বাধীনতার মূল্যবোধের পরিপন্থী প্রচারের মানুষদের স্থান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে হতে পারে না।

ভিসি বলেন, আজকের এই অনুষ্ঠানে কত মানুষ আছে। অভিভাবক আছেন। প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা আছেন। তাঁদের তো কোথাও কোনো গেটে নিষেধাজ্ঞা বা বাধা দেওয়া হয়নি।

প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের জন্য এই বিশ্ববিদ্যালয় সব সময় উন্মুক্ত। সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, শিল্পীদের সম্মান বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকবে।

কিন্তু মাদকসেবী, জঙ্গি, চরমভাবাপন্ন, মাস্তান, যারা মোটরসাইকেল নিয়ে দ্রুত বেগে শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক জীবন বাধাগ্রস্থ করবে সেসব মানুষের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ভাবতে হবে।

ঢাবি ভিসি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশপথগুলোতে ঐতিহ্যগতভাবেই একটা প্রতিবন্ধকতা দেওয়া থাকে। এটা মানুষ ঠেকানোর জন্য নয়। সেখানে একজন নিরাপত্তারক্ষী থাকেন।

তাঁর বসার জন্য একটা ঘর করতে হয়। সেটা হচ্ছে নিরাপত্তাচৌকি। অনেকে চমৎকার চমৎকার কথা বলেন। তারা বলেন, নিরাপত্তাচৌকি তৈরি করে বিশ্ববিদ্যালয়কে ক্যান্টনমেন্ট বানানো হচ্ছে।

যাঁরা মানসিকভাবে বিরক্ত থাকেন, তাঁরা জনউত্তেজনা তৈরির জন্য এ ধরনের অপতথ্য প্রচার করেন।
অধ্যাপক সিতারা পারভীন পুরস্কার পেলেন ১০ শিক্ষার্থী: ২০১৭ সালের বিএসএস (সম্মান) পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফল করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ১০ শিক্ষার্থীকে অধ্যাপক সিতারা পারভীন পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে এই পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

পুরস্কার পেয়েছেন মো. রাগিব রহমান, সঞ্জয় বসাক, ফারজানা তাসনিম, জাকিয়া জাহান, মো. শামীম হোসেন, ওয়াহিদা জামান সিঁথি, সায়েদুজ্জামান, জিনাত শারমিন, দায়েদ হাসান ও দুর্জয় চক্রবর্তী।

অনুষ্ঠানে ‘কেন নাটক’ শীর্ষক স্মারক বক্তৃতা দেন মঞ্চ অভিনেতা ও শিল্পী রামেন্দু মজুমদার। সভাপতির বক্তব্য দেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারপারসন অধ্যাপক কাবেরী গায়েন।

আরও বক্তব্য দেন অধ্যাপক আহাদুজ্জামান মোহাম্মদ আলী প্রমুখ।

 

ঢাকা, ২৩ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।