ছিনতাইয়ে জড়িয়ে পড়ছে জাবির কতিপয় শিক্ষার্থী!


Published: 2018-06-24 12:46:48 BdST, Updated: 2018-09-24 00:54:04 BdST

জাবি লাইভ : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কতিপয় শিক্ষার্থী ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছেন। বহিরাগতদের জিম্মি করে তারা এমন অপকর্ম করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। দর্শনার্থীদের টার্গেট করে এমন অপকর্ম চলছে। এবার জাবির ৩ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগ তুলেছেন বহিরাগত দুই দর্শনার্থী। শুক্রবার (২২ জুন) বিকেল ৪টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেনের সামনের সড়কে তারা ছিনতাইয়ের শিকার হন।

অভিযুক্ত তিন শিক্ষার্থী হলেন- আশরাফুল ইসলাম দ্বীপ, মাজিদুল হাসান রবিন এবং মোহাম্মদ রায়হান পাটোয়ারী। এ ঘটনায় দর্শনার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা বরাবর বিচারের দাবি করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগকারী রুবেল বড়ুয়া বলেন, শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে বোটানিক্যাল গার্ডেনের সামনে কালভার্ট সড়কে মোটরসাইকেল চালু করছিলাম। এ সময় কয়েকজন ছেলে এসে আমাদের সঙ্গে তর্কে জড়ায়। একপর্যায়ে ছুরি দেখিয়ে টাকা নেয়ার জন্য ধস্তাধস্তি করে এবং টাকা ছিনিয়ে নেয়। তখন সহকারী রেজিস্ট্রার ও নিরাপত্তা কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে হাজির হন এবং আমার কাছ থেকে অভিযুক্তরা যে টাকা কেড়ে নিয়েছিল তা উদ্ধার করে নিজ হেফাজতে রেখে সিকিউরিটি অফিসে নিয়ে আসেন। তখন কথাবার্তার মাধ্যমে অভিযুক্তদের নাম আশরাফুল ইসলাম দ্বীপ, মাজিদুল হাসান রবিন ও এবং মোহাম্মদ রায়হান পাটোয়ারী বলে জানতে পারি। এ সময় অভিযুক্তরা সিকিউরিটি অফিসে আসে এবং আমাদের হুমকি-ধমকি দেয়।

ছিনতাইয়ের ঘটনায় অভিযুক্ত দ্বীপ ও রবিন ৪৩তম আবর্তনের রসায়ন ও দর্শন বিভাগের এবং রায়হান ভূতাত্ত্বিক বিভাগের ৪৫তম আবর্তনের শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে মাজিদুল হাসান রবিন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সহ-সম্পাদক।

ছিনতাইয়ের অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত রবিন বলেন, আমি ঘটনার সময় সেখানে ছিলাম না। জুনিয়রের ফোন পেয়ে পরবর্তীতে ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে ছিনতাইয়ের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

উল্লেখ্য, এর আগেও জাবিতে ছিনতাইয়ের ঘটনায় শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। এসব বিষয় নিয়ে ক্যাম্পাসের ইমেজ ক্ষুন্ন হচ্ছে। দর্শনার্থীরা নানাভাবে হয়রানির শিকারও হন।

ঢাকা, ২৪ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।