প্রাইভেটকারে ছাত্রীকে ধর্ষণ, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের রিমান্ড!


Published: 2018-06-12 13:18:37 BdST, Updated: 2018-10-23 05:36:58 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : রাজধানীতে প্রাইভেটকারে তুলে এক ছাত্রীকে ধর্ষণের সময় জনতার হাতে আটক বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্র মাহমুদুল হক রনির ৭ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ। ধর্ষণ মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চেয়ে শেরেবাংলা নগর থানা থেকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। শেরেবাংলা নগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, অভিযুক্ত মাহমুদুল হক রনিকে সোমবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। আটকের সময় ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাওয়া গাড়ির চালক ফারুককে গ্রেফতারসহ ঘটনার বিষয়ে আরও তথ্য জানতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রনির সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, শনিবার দিবাগত রাত ৩টায় কলেজগেট সিগন্যালে প্রাইভেটকারের (ঢাকা মেট্রো- গ ২৯-৫৪১৪) ভেতরে এক ছাত্রীকে ধর্ষণকালে মদ্যপ রনি ও গাড়িচালক ফারুককে আটক করে জনতা।

এ সময় রনি ও ফারুককে ব্যাপক মারধর করে জনতা। একপর্যায়ে ফারুক বিবস্ত্র অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। অন্যদিকে রনিকে শেরেবাংলা নগর থানার পুলিশের কাছে সোপর্দ করে জনতা।

রোববার ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে রাফি আহমেদ নামে একজন ওই ঘটনার বিবরণসহ একটি ভিডিওচিত্র সামাজিকমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করলে তা ভাইরাল হয়ে যায়। অন্যদিকে রাফি আহমেদকে মোবাইল ফোনে বারবার হত্যার হুমকি দেয় অভিযুক্ত রনির ঘনিষ্ঠজনরা। এর পর রাফি ফেসবুক থেকে তার স্ট্যাটাস ও ভিডিও মুছে ফেলেন।

উল্লেখ্য, রনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে স্নাতক পাস করেছেন। তিনি পড়াশোনার পাশাপাশি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলে জানা গেছে।

ঢাকা, ১২ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।