সংঘর্ষের পর বন্ধ ডুয়েট, ছাত্রলীগ সম্পাদকসহ আটক-৬


Published: 2018-05-23 19:12:38 BdST, Updated: 2018-08-18 04:21:25 BdST

গাজীপুর লাইভ: ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসময় অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিয়েছে ছাত্রলীগের নেতকর্মীরা। এনিয়ে ক্যাম্পাসে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পাশাপাশি ২৩ জুন থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রলীগের ডুয়েট শাখার সাধারণ সম্পাদক বিনয় ব্যানর্জী, সাবেক সহ-সভাপতি মো. আবুল হোসেন আকাশ ও হানিফ মাহমুদসহ ৬ ছাত্রকে আটক করেছে।

জানা গেছে, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ডুয়েট ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি তায়েবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক বিনয় ব্যানার্জী সমর্থিত কর্মীরা মুখোমুখি অবস্থান নেন। সভাপতি সমর্থিত কয়েক কর্মী বিশ্ববিদ্যালয় গেইট এলাকার ফটোকপি ব্যবসায়ী দুজনকে ক্যাম্পাসে ধরে নিয়ে চাঁদা দাবি করে।

খবর পেয়ে সাধারণ সম্পাদক সমর্থিত অপর কয়েক কর্মী ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রতিবাদ জানায় এবং আটকৃতদের ছেড়ে দিতে বলে। এনিয়ে দুই পক্ষের মাঝে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে প্রতিপক্ষের হামলায় সাধারণ সম্পাদক সমর্থিত কর্মী ইইই বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সাদ্দাম হোসেন ও ওয়াফিক হোসেন এবং একই বর্ষের মেকানিক্যাল বিভাগের ছাত্র মিজানুর রহমান মিঠুন আহত হন।

আহতদের বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ক্যাম্পাসে উত্তেজনা দেখা দিলে নির্ধারিত সময়ের কয়েকদিন আগেই রমজান ও ঈদ উপলক্ষে আগামি ৩০ জুন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছুটি ঘোষণা করে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ।

এদিকে মঙ্গলবার রাতে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি তায়েবুর রহমানের সমর্থিতরা কাজী নজরুল ইসলাম আবাসিক হলের পুরাতন ভবনে এবং সাধারণ সম্পাদক বিনয় ব্যানার্জী সমর্থিতরা একই হলের এক্সটেনশন ভবনে অবস্থান নিয়ে মহড়া দিতে থাকে।

একপর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং দুই গ্রুপের মধ্যে ধারালো অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগ করার জন্য পুলিশ রাতে বিভিন্ন আবাসিক হলে অভিযান চালায়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মোহাম্মদ আলাউদ্দিন জানান, ছাত্রদের দু’টি পক্ষের মাঝে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

তাই নির্ধারিত সময়ের কয়েকদিন আগেই রমজান ও ঈদ উপলক্ষে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছুটি ঘোষণা করে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়।


ঢাকা, ২৩ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।