জাবিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতাকে নির্যাতন ছাত্রলীগের


Published: 2018-05-13 22:07:21 BdST, Updated: 2018-12-14 12:01:54 BdST

জাবি লাইভ : গেস্ট রুমে ডেকে নিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের শীর্ষ নেতাকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। নির্যাতিত খালিদ মাহমুদ তন্ময় কোটা সংস্কার আন্দোলনের সংগঠন ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ জাবি শাখার সদস্য সচিব। নির্যাতনের বিচার চেয়ে ভুক্তভোগী ওই ছাত্র ছাত্রলীগ কর্মী সাগর সিদ্দিকীর নাম উল্লেখ করে আরো চার-পাঁচজনের বিরুদ্ধে মীর মশাররফ হোসেন হলের প্রাধ্যক্ষকে একটি অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযুক্ত ও ভুক্তভোগী সকলেই ওই হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। এর আগে এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের কাছেও মৌখিক অভিযোগ জানিয়েছেন তন্ময়।

মারধরের শিকার তন্ময় বলেন, ‘শনিবার রাত ১টার দিকে সাগর (আন্তর্জাতিক সম্পর্ক-৪৬ব্যাচ) সহ হলের ৪-৫জন ছাত্রলীগ কর্মী আমাকে গেস্ট রুমে ডেকে শিবিরের সাথে আমার সম্পৃক্ততা নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। আমি শিবির সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি অস্বীকার করলে তারা আমার মোবাইল কেড়ে নেয় এবং আমার বিরুদ্ধে শিবিরের লিফলেট বিতরণের অভিযোগ আনে। কিন্তু আমি বিষয়টি মিথ্যা দাবি করে তাদের কাছে প্রমাণ চাইলে তারা আমাকে মারধর করে।’ কোটা সংস্কার আন্দোলন শুরুর পর থেকে মারধরকারীরা বিভিন্ন সময়ে তাকে হুমকি দিয়ে আসছিলো বলেও জানান তন্ময়।

অভিযুক্ত সাগর সিদ্দিকী জাবি ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানার অনুসারী। মারধরের বিষয়ে সাগর সিদ্দিকী বলেন, ‘তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়নি। শিবিরের সাথে তার সংশ্লিষ্টতার খবর জানতে পেরে আমরা হলের বন্ধুরা তার সাথে কথা বলি। এ সময় তার ফোনে রেকর্ডিং চালু থাকায় আমরা ফোনটি রেখে দিয়েছি।

এ বিষয়ে মো. জুয়েল রানা বলেন, ওই ছেলেটির আচরণ সন্দেহজনক মনে হওয়ায় তাকে জিজ্ঞসাবাদ করা হয়েছে।

মীর মশাররফ হোসেন হলের প্রাধ্যক্ষ প্রফেসর শফি মুহাম্মদ তারেক অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকা, ১১ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।