শেকৃবিতে খাবার নিয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ, ভাংচুর


Published: 2018-02-12 12:32:44 BdST, Updated: 2018-08-19 06:13:46 BdST

শেকৃবি লাইভ : শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) কেন্টিনে খাবারের নিম্নমান নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সমর্থকদের ওই সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে শেরে-ই-বাংলা হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. হাসানুজ্জামান আকন্দসহ ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের সময় দু’টি আবাসিক হলের প্রায় ১৮ কক্ষে ব্যাপক ভাঙচুর চালিয়েছে উভয়পক্ষ।

সভাপতি মাসুদুর রহমান মিঠু গ্রুপের আহতরা হলেন- ওমর, রাকিব, মনির, রনি ও শোভন। সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান গ্রুপের আহতরা হলেন- ইমরান, সামিউল, শাহাদাত, সুমন ও আরিফ। আহত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, রোববার রাতে হলের ক্যান্টিনে নিম্নমানের খাবার দেওয়ায় সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমানের সমর্থক ৭৪ ব্যাচের তৌফিক, প্রতীক, প্রান্তসহ বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী ক্যান্টিন বন্ধ করতে যান। এসময় ক্যান্টিন বন্ধ করতে না করেন সভাপতি গ্রুপের সমর্থক মুহিত। এতে মুহিতের সঙ্গে বাক-বিতণ্ডা হয় সাধারণ সম্পাদক সমর্থকদের। এসময় মুহিতের সঙ্গে যোগ দেয় সভাপতি গ্রুপের বেশ কিছু সমর্থক। বাক-বিতণ্ডার একপর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে হাতা-হাতির ঘটনা ঘটে। এঘটনার জের ধরে পরে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীরা অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে একে অপরের ওপর হামলা চালায়।

এসময় শেরে-ই-বাংলা হলের ১২৩, ২১২, ৩২১, ৩২২, ৩২৫, ৩২৬, ৩২৭, ৩২৮ নম্বর কক্ষ এবং কবি কাজী নজরুল ইসলাম হলের ১১৩, ১১৬, ১২৩, ২০৫, ৩০৬, ৪০৬ ৬১১, ৬২০, ৬১৯ নম্বর কক্ষে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. ফরহাদ হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে কক্ষ ভাঙচুরে অনেক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। দোষীদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ঢাকা, ১২ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।