ফ্রি ফায়ার খেলাকে নিয়ে বাবা নিহত ছেলে আহত


Published: 2021-08-01 00:00:45 BdST, Updated: 2021-09-27 17:28:24 BdST

চুয়াডাঙ্গা লাইভ: ফ্রি-ফায়ার গেমস্ খেলাকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে শহিদুল ইসলাম (৪৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ সময় গুরুতর জখম হয়েছে তার ছেলে ইলফাজ হোসেন (১৬)। চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় শনিবার ৩১ জুলাই দুপুর ২টার দিকে দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের বড় মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শহিদুল ইসলাম (৪৫) একই গ্রামের তাহার আলীর ছেলে। তার মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। স্থানীয়রা জানায়, শনিবার দুপুরে আমজাদের ছেলে সুজন (১৮), আশানুরের ছেলে জাকির (১৬) ও শহিদুলের ছেলে ইলফাজ (১৬) মোবাইল ফোনে অনলাইনে ফ্রি-ফায়ার গেমস্ খেলছিলো।

খেলার একপর্যায় জাকিরের সঙ্গে সুজনের কথা কাটাকাটি হয়। জাকির ও ইলফাজ সম্পর্কে চাচাতো ভাই হওয়ায় এক পর্যায়ে ইলফাজ জাকিরের পক্ষে কথা বলায় সুজন ক্ষিপ্ত হয়ে জাকির ও ইলফাজকে মারধর করে।

পরে ইলফাজের বাবা শহিদুল (৫৪) প্রতিবাদ করলে সুজন বাসা থেকে ছুরি এনে বাবা শহিদুল ও ছেলে ইলফাজকে ছুরিকাঘাত করে। এতে শহিদুল ও ইলফাজ মারাত্মক ভাবে রক্তাত্ব জখম হয়। আহত শহিদুলকে ও তার ছেলে ইলফাজকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক শহিদুলকে মৃত্যু ঘোষণা করে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, শহিদুলের শরীর থেকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে। হাসপাতালে আনার আগেই মারা যান তিনি। আহত ইলফাজকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে দর্শনা থানার ওসি মাহাব্বুর রহমান জানান, নিহতের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে। তিনি বলেন এধরনের ঘটনা খুবই দু:খজনক।

ঢাকা, ৩১ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এবিএম

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।