''আমার কাছে কোনও অস্ত্র ছিল না, আমি সাফাই সাক্ষী দেবো না''


Published: 2020-09-16 17:34:32 BdST, Updated: 2020-11-01 01:23:30 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ অস্ত্র আইনে করা মামলায় নিজেকে সম্পূর্ণ নির্দোষ দাবি করে ন্যায়বিচার চেয়েছেন রিজেন্ট হাসপাতাল ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ। বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থনে তিনি এ দাবি করেন। সাহেদ বলেন, ‘আমার কাছ থেকে কোনও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়নি। আমি সম্পূর্ণ নির্দোষ। আমি আদালতের কাছে ন্যায়বিচার চাই।’

এরপর বিচারক তাকে সাফাই সাক্ষী দেবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সাহেদ বলেন, ‘আমি সাফাই সাক্ষী দেবো না।' এরপর আদালত যুক্তি উপস্থাপন শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দিন ধার্য করেন। আদালতের সংশ্লিষ্টরা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত ২৭ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ সাহেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। এ মামলায় ১১ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করা হয়েছে।

এদিকে গত ৩০ জুলাই ঢাকা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মো. শায়রুল আসামি সাহেদের বিরুদ্ধে এ চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন।
মো. সাহেদ

গত ২৬ জুলাই উত্তরা পশ্চিম থানার পৃথক তিন মামলায় ও উত্তরা পূর্ব থানার এক মামলায় ১০ দিন করে সাহেদের মোট ৪০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে মামলার তদন্ত সংস্থা র‌্যাব।আবেদনের পর বিচারক প্রত্যেক মামলায় সাত দিন করে মোট ২৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত ১৬ জুলাই উত্তরা পশ্চিম থানার প্রতারণা মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এর আগে গত ১৫ জুলাই ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সাতক্ষীরার দেবহাটা সীমান্ত থেকে অবৈধ অস্ত্রসহ সাহেদকে গ্রেফতার করার কথা জানায় র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়। গ্রেফতারের পরই তাকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়।

ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।