করোনাভাইরাসের গুজব ছড়ানোর দায়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সম্পাদক শ্রীঘরে


Published: 2020-03-21 21:47:31 BdST, Updated: 2020-03-31 22:30:43 BdST

মানিকগঞ্জ লাইভঃ গুজব। এটা একটা সমস্যা বটে। তবে এই সমস্যা কখনও কখনও কাল হয়ে দাঁড়ায়। জনমনে দেখা দেয় আতঙ্ক। এমনি আতঙ্ক ছড়ানোর দায়ে আটক হলেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ মানিকগঞ্জ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক। তার নাম ইঞ্জিনিয়ার সাদ্দাম হোসেন অভি।

এই ঘটনাটি ঘটেছে মানিকগঞ্জ জেলায়। শনিবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে বাচামারা বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক সাদ্দামের বাড়ি দৌলতপুর উপজেলার বাচামারা চরখন্ড গ্রামে। পুলিশ ওই নেতাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে নিয়ে গেছে। এনিয়ে এলাকায় নানান আলোচনা ও সমালোচনা চলছে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মো. হাফিজুর রহমান জানান, শুক্রবার সকাল ১১টা ২৩ মিনিটে সাদ্দাম হোসেন অভি তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে ‘করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানিকগঞ্জের মুন্নু মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১ জনের মৃত্যু ও ৩ জনকে ঢাকায় স্থানান্তর’ লিখে গুজব ছড়িয়ে দেন।

এই স্ট্যাটাস নিয়ে এলাকায় নানান সমালোচনা শুরু হয়। আসলে এটি ছিল ডাহা মিথ্যা একটি সংবাদ। বিষয়টি নিয়ে এলাকার গন্যমান্য লোকজন আলোচনা করে পুলিশ কে জানায়।

বিষয়টি পুলিশের দৃষ্টিতে আসার পর অভিযান চালিয়ে তাকে সন্ধ্যায়ই গ্রেফতার করে অভিকে। এ ধরনের নানান কাজ আগেও সে করেছে বলে এলাকাসি সূত্রে জানা গেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও বলেন, সাদ্দাম হোসেন অভি মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলা প্রকৌশলী সমিতির সহ-সভাপতি। তিনি যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাসায়নিক প্রকৌশলীতে বিএসসি পাশ করেন।

শিক্ষাজীবনে তিনি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মসিয়ূর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক এবং রাসায়নিক প্রকৌশল বিভাগ ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্বপালন করেন। এলাকায় তিনি অনেক দাপটের সাথেই চলা ফেরা করতেন।

সাদ্দাম হোসেন অভির বিরুদ্ধে শনিবার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২০১৮ এর ২৫ (খ)(২)/৩১ ধারায় মামলা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে এলাকাবাসীরা জানান আমরা এধরনের রুপকাহিনী আরো অনেক শুনি সব কাহিনীর বিচার পাইনা।

ঢাকা, ২১ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//টিআর

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।