রহস্য উদ্ধারে যাচাই বাচাই চলছেপর্ণোগ্রাফিতে ব্যবহৃত ছবির সেই ছাত্রীর স্কুলে যাওয়া বন্ধ!


Published: 2019-09-01 16:37:05 BdST, Updated: 2019-09-20 10:05:47 BdST

                                              ফাইল ছবি

গাইবান্ধা লাইভঃ পর্ণোগ্রাফিতে যার ছবি ব্যবহার করা হয়েছে সেই ছাত্রীর স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে। সে আর স্কুলে যেত পারছে না। আশে পাশের লোকজন তাকে একনজর দেখতে প্রায়ই ওই বাড়ির আঙিনায় যায় বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে। প্রেমের প্রস্তাবে ব্যর্থ হওয়ায় গাইবান্ধার পলাশবাড়িতে এক স্কুলছাত্রীর ছবি তুলে পর্ণোগ্রাফি বানানোর অভিযোগে এখন অনেকটাই ভাইরাল।

আর ওই দু:খজনক ঘটনায় বাধ্য হয়ে ওই ছাত্রীর পরিবার তার পড়ালেখা বন্ধ করে দিয়েছে। এ অভিযোগে গতরাতে ২ বখাটে স্বপন সরকার ও ইমরান হাসানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ । তাদের কাছ থেকে উদ্ধারের চেষ্ঠাও চলছে নানান কাহিনী।

এ বিষয়ে পলাশবাড়ি থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত জানান, গাইবান্ধা তুলসীঘাটের লাইট হাউস নামের একটি স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়তো ওই ছাত্রী। তাকে প্রেম নিবেদন করে পলাশবাড়ি উপজেলার রাজনগর গ্রামের বখাটে স্বপন সরকার ও তার সহযোগি ইমরান হাসান।

এদিকে মেয়ের পিতা আইয়ুব আলী বলেন, তার মেয়ের স্কুলে যাওয়া-আসার পথে প্রায়ই ওই দুই বখাটে প্রেমের প্রস্তাব দিতো। বখাটে দু’জনের উৎপাতে মেয়ের পিতা আইয়ুব আলী মেয়েকে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেন।

বাধ্য হয়ে বাল্য বিয়েও দেন মেয়েকে। মেয়েটির পিতা আরও বলেন, এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত দুই বখাটে প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে। তারা মেয়ের বিয়ের ছবি তুলে তা অশ্লীল ছবির সঙ্গে জোড়া লাগিয়ে ফেসবুকে পোষ্ট করে।

ওই ছাত্রীর পিতা আইয়ুব আলী বাদী হয়ে পলাশবাড়ি থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ গতরাতে অভিযুক্ত স্বপন সরকার ও ইমরান হাসানকে গ্রেপ্তার করে।

এলাকাবাসী জানান, এরা এলাকায় নানান ধরনের অপকর্ম করে বেড়াতো। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কোন প্রতিবাদ করতে সাহস পেত না। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি দাবী করেছেন এলাকাবাসী।


ঢাকা, ১ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।