বন্ধুদের নিয়ে ধর্ষণে অজ্ঞান ছাত্রী, বন্দুকযুদ্ধে নিহত বয়ফ্রেন্ড!


Published: 2019-08-05 16:12:48 BdST, Updated: 2019-08-18 15:45:03 BdST

ময়মনসিংহ লাইভ: ছাত্রীকে ডেটিংয়ের কথা বলে ডেকে বন্ধুদের নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে প্রতারক বয়ফ্রেন্ডের বিরুদ্ধে। ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ওই কথিত বয়ফ্রেন্ড নিহত হয়েছেন। রবিবার রাতে ফুলবাড়ীয়া উপজেলার পার্টিরা কালাহদহ ঈদগাহ মাঠ এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত জহিরুল ইসলামের বাড়ি ফুলবাড়িয়া উপজেলার কৈয়েরচালা গ্রামে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি মো. শাহ কামাল আকন্দ ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, গত ৩ আগস্ট রাত ৮টার দিকে উপজেলার পলাশতলী এলাকায় জহিরুল তার গার্লফ্রেন্ডকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে তিনজন মিলে গণধর্ষণ করে। এ সময় ভুক্তভোগী অজ্ঞান হয়ে গেলে তাকে ফেলে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

পরে এ ঘটনায় ফুলবাড়ীয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা হয়। এই মামলার অন্যতম আসামি জহিরুল ইসলাম ডিবি পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। রোববার রাত আড়াইটার দিকে ডিবি পুলিশের আরেকটি দল গণধর্ষণ মামলার আসামি জহিরুল ইসলামকে গ্রেপ্তারের জন্য ফুলবাড়িয়া উপজেলার কালাদহ এলাকায় অভিযান চালায়।

কালাদহ ঈদগাহ মাঠ এলাকায় গণধর্ষণ মামলার আসামিরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি করতে শুরু করে। পুলিশও পাল্টা গুলি করলে একপর্যায়ে আসামিরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় জহিরুলকে পাওয়া যায়। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়েছে।

ঢাকা, ০৫ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।