এক বছর ধরে ছাত্রীকে ধর্ষণ, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল


Published: 2019-07-08 19:01:27 BdST, Updated: 2019-08-22 22:29:23 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: এক বছর ধরে ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজের সাবেক প্রিন্সিপাল ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপসচিব একেএম রেজাউল করিম রতনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন শিক্ষার্থীরা। এছাড়াও দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবিও জানান শিক্ষার্থীরা।

সোমবার শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের তৃতীয় দিনে একটি মিছিল বের করেন তারা। বিক্ষোভ মিছিলটি কলেজ প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে আসাদগেট আড়ংয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে ওই স্থানে দোষী উপসচিবের বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনে কলেজের বর্তমান শিক্ষার্থী ছাড়াও সাবেক শিক্ষার্থীরাও অংশ নেন।

বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, তাদের কলেজের সাবেক প্রিন্সিপাল একেএম রেজাউল করিম রতন কলেজের প্রিন্সিপাল থাকাকালে ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের এক ছাত্রীকে তার কক্ষে ডেকে চেতনানাশক ওষুধ পান করিয়ে ধর্ষণ করেন। এরপর ওই ঘটনার ভিডিওচিত্র প্রকাশের ভয় দেখিয়ে টানা এক বছর তাকে ধর্ষণ করে ওই ছাত্রীকে। এঘটনায় বিচার দাবিতে ফুসে উঠেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

এসময় বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীদে দাবিগুলোর হচ্ছে, অভিযুক্ত রেজাউল করিমের ফাঁসি, দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রীদের নিরাপত্তা প্রদান, মামলা কার্যক্রম দ্রুত শেষ করা, ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রদান, কোনও প্রকার জামিন মঞ্জুর না করা, মামলার কাজ শেষ না হাওয়া পর্যন্ত আসামিকে আইনের আওতায় রাখা।

কলেজ শিক্ষার্থী শাহীন জানান, আমাদের সাবেক প্রিন্সিপাল একেএম রেজাউল করিম রতন আমাদের ব্যাচের এক শিক্ষার্থীকে টানা এক বছর ধরে ধর্ষণ করেছেন। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। তিনি জামিনে বের হয়ে এখন বিভিন্নভাবে হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন। বাবার মতো শিক্ষকের কাছে যদি শিক্ষার্থীরা নিরাপদ না থাকেন, তাহলে আমরা যাবো কোথায়? আমরা ধর্ষক ওই শিক্ষককের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

ঢাকা, ০৮ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।