ঈশ্বরগঞ্জে বিক্ষোভ আর সংঘর্ষ, ২ স্কুলছাত্র আহত


Published: 2019-02-12 18:27:46 BdST, Updated: 2019-08-20 18:42:11 BdST

ময়মনসিংহ লাইভঃ এবার প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মধুপুর বাজারে সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ছাত্রবিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ সময় অগ্নিসংযোগ ও সংঘর্ষের ঘটনায় ২ স্কুল ছাত্র আহত হয়। বিক্ষোভকারী ছাত্ররা এ ঘটনার জন্য উপজেলার মগটুলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সালেহ মোহাম্মদ বদরুজ্জামানের শাস্তি দাবি করে।

জানা যায়, মগটুলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু সালেহ মোহাম্মদ বদরুজ্জামান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আমিনুল ইসলামকে মধুপুর বাজারের একটি বইয়ের দোকানের ভেতরে বসা অবস্থায় লাঞ্ছিত করেন।

এ ঘটনা শুনার পর ছাত্ররা উত্তেজিত হয়ে সোমবার বিদ্যালয়ে এসে ঘটনার প্রতিবাদ জানানোর জন্য রাস্তায় নেমে আসে। সকাল দশটার দিকে উপজেলার মধুপুর বাজারে গিয়ে দেখা যায়, মধুপুর বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের শতাধিক ছাত্র লাঠিসোটা নিয়ে বিক্ষুব্ধ অবস্থায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে।

তারা ওই ঘটনায় চেয়ারম্যানের শাস্তি দাবি করে বাজারের চৌরাস্তায় অবস্থান নিয়ে স্লোগান দিতে থাকে। ওই সময় চেয়ারম্যান সমর্থকদের হাতে ১০ম শ্রেণির রাকিব ও ৮ম শ্রেণির ফাহিম আহত হয়।

এ খবর অন্য ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠে বিদ্যালয় ক্যাম্পাস সহ মধুপুর বাজার এলাকায়। বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা ওই বাজারের কৃষিব্যাংকের সামনে থাকা ইউপি চেয়ারম্যানের একটি প্রতিবাদ সমাবেশের মঞ্চ ভেঙে ফেলে। বাজার এলাকার সকল সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে যানচলাচল বন্ধ করে দেয়।

বিক্ষোভ চলার সময় চেয়ারম্যানের বাড়ির একটি ঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ সময় আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে নান্দাইল ও ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দু’টি ইউনিট। খবর পেয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি আহমেদ কবীর বিপুল সংখ্যক পুলিশ নিয়ে এসে সড়কে বিক্ষোভরত ছাত্রদের বুঝিয়ে বিদ্যালয়ের ভেতরে নিয়ে যান।

সেখানে তিনি (ওসি) একটি মাইক নিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিলে ছাত্ররা শান্ত হয়। প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, রোববার বাজারে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির দ্বন্দ্ব নিয়ে তাকে লাঞ্ছিত করেন চেয়্যারম্যান মামুন।

তবে ছাত্র-ছাত্রীরা চেয়ারম্যানের বাসা ঘেরাওয়ের বিষয়টি তিনি জানেনা বলে জানান। ঘটনার সময় তিনি স্কুলে ছিলেন না। গত বছরের ১৬ই অক্টোবর নতুন করে স্কুল পরিচালনা কমিটির অনুমোদন দেয় বোর্ড। পরবর্তীতে একটি মামলার প্রেক্ষিতে জেলা জজ আদালত কমিটির কার্যক্রম স্থগিত করেন। এনিয়ে সংঘর্ষ হয়েছে।

ঢাকা, ১২ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।