যে কারণে নিখোঁজ কলেজছাত্রীর জীবন শেষ


Published: 2018-11-16 16:52:33 BdST, Updated: 2018-12-11 02:31:38 BdST

নোয়াখালী লাইভ: আর ফিরবেন না। আর তাদের ঘরকে জমিয়ে রখবেন না। গল্প আর আড্ডায় সময় দেবেন না তাবাসছুন তানিয়া চমক (২১)। মাকে আর বাবাকে ডাকবেন না, কোন অভিযোগ ও অনুযোগ দিবেন না তিনি। নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদী থেকে নিখোঁজের তিন দিন পর তাবাসছুন তানিয়া চমক নামের এক কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পরিবারের দাবি, চমক গত রোববার রাতে রেলস্টেশন থেকে তাঁর মা-বাবাকে আনতে গিয়ে নিখোঁজ হন। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মাইজদী পৌরবাজার-সংলগ্ন নিজ বাসার পাশের একটি ডোবা থেকে চমকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

জানাগেছে তাবাসছুন তানিয়া চমক ব্যবসায়ী শাহাজাদ এনামুল হক হিমেলের মেয়ে। চমক সোনাপুর ডিগ্রি কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষে পড়তেন। সুধারাম মডেল থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে এবং নিহত ছাত্রীর পরিবারকে থানায় মামলা দায়েরের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিস্টরা জানান, গত রোববার রাতে ঢাকা থেকে উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনে করে চমকের বাবা-মা নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। তাঁদের আনতেই মাইজদী রেলস্টেশনে যান চমক। কিন্তু বাবা-মা সরাসরি বাসায় এসে মেয়েকে দেখতে পাননি।

পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে বিষয়টি সুধারাম থানা পুলিশকে জানানো হয় এবং এ ব্যাপারে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। এর মধ্যে তিন দিন অতিবাহিত হলেও চমককে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি। গতকাল সন্ধ্যার কিছু আগে স্থানীয় লোকজন দুর্গন্ধ পেয়ে বাড়ির বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালায়।

পরে বাড়ির পাশে জঙ্গলের মধ্যে ডোবায় চমকের লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

 

ঢাকা, ১৬ নভম্বের (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।