ছাত্রলীগের সেই নেতা রনি এবার পেটালেন কোচিং শিক্ষককে


Published: 2018-04-19 17:30:00 BdST, Updated: 2018-09-26 13:40:11 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: ছাত্রলীগ নেতা রনি একটি নাম, একটি আতঙ্ক। যার হতে একের পর এক নির্যাতিত হচ্ছে শিক্ষাগুরু, শিক্ষাজাতির অভিভাবক মহল। কেউ কেউ বলছে চট্রলা অঞ্চল অভিভাবকহীন হয়ে পড়ছে আওয়ামী রাজনৈতিক মহলও। রনি এভাবে আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়ায় বার বার জাতির কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ছে সরকার দলের অনেকেই।

কিছুদিনে আগে কলেজ প্রিন্সিপালকে পেটানোর ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার পেটালেন কোচিং সেন্টারের এক শিক্ষককে। সম্প্রতিকালে প্রকাশিত একটি ভিডিও ফুটেজে রনির পেটানো দৃশ্যটি খুবই বেদনা দায়ক ভাবে প্রকাশ পেয়েছে। ছাত্রলীগ ওই নেতা চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি আরেক কেলেঙ্কারি সৃষ্টি করেছ।

জানা গেছে, ছাত্রলীগ ওই নেতা কোচিং ব্যবসায়ীকে পিটিয়েছে। আইনের হাতেই যদি এভাবে বার বার নির্মমতায় শিকার হয় শিক্ষক মহল তাহলে দেশের শিক্ষাব্যাবস্থা উন্নত হতে পারে না বলে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে ইচ্ছুক অনেকেই। ইতোমধ্যে বিষয়টি জানিয়ে কোচিং মালিক রাশেদ মিয়া পাঁচলাইশ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

কোচিং সেন্টারের শিক্ষককে পেটানোর ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ প্রায় ৬ মিনিটের এই সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, প্রথমে ইউনিএইড কোচিং সেন্টারের মালিক রাশেদ মিয়াকে আঙুল তুলে শাসিয়ে টেবিল চাপরাচ্ছেন রনি। এক পর্যায়ে রাশেদের গালে একের পর এক থপ্পড় মারতে দেখা যায় রনিকে। পরে চুল ধরে টানা-হেঁচড়া শুরু করে ছাত্রলীগ ওই নেতা যার নাম রনি।

কিছুক্ষন পর পর চলতে থাকে তার অ্যাকশন। এভাবে প্রায় আড়াই মিনিট চলার পর রুম ছেড়ে বেরিয়ে যান রনি। কয়েক মুহূর্ত পরই আবারো ফিরে এসে গালমন্দ করতে থাকেন। এই মুহূর্তে তাকে দীর্ঘ সময় কারো সঙ্গে ফোনালাপে ব্যস্ত থাকতেও দেখা যায়।

এদিকে জানা গেছে, কোচিং মালিক ও শিক্ষক রাশেদ বার বার হাতজোড় করে ক্ষমা চাইলেও মাফ পাননি তিনি। একের পর এক ফিল্মের স্টাইলে মারপিটের পরও অসহায়ের মতো চেয়ারে বসে থাকতে দেখা যায় শিক্ষক রাশেদকে।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, সময় অসময়ে রনি নানা রকম দাবি করে আসতো ওই কোচিং মালিকের কাছে। তার দাবি পূরণ না হলেই এভাবেই ক্ষিপ্ত হয়ে নানারকম বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়তো কোচিং মালিক পক্ষ। এক সময় ছাত্রলীগ ওই নেতা ইউনিএইড কোচিং সেন্টারে মালিকানাও দাবি করে বসে।

ভিডিও:

 


ঢাকা, ১৯ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।