প্রশ্ন নিয়ে বাইরে যাওয়ার সময় আটক প্রধান শিক্ষক


Published: 2018-02-10 16:24:20 BdST, Updated: 2018-10-18 03:08:38 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: গাজীপুরের শ্রীপুরে কেন্দ্র সহকারি সচিবকে আটক করেছে পুলিশ।এসএসসির গণিত পরীক্ষার প্রশ্ন নিয়ে বাইরে যাওয়ার সময় তাকে আটক করা হয়। আটককৃত সহকারি কেন্দ্র সচিবের নাম আমজাদ হোসেন।

আটক আমজাদ হোসেন "আলহাজ্ব ধনাই বেপারি উচ্চ বিদ্যালয়ের" প্রধান শিক্ষক ও এসএসসি পরীক্ষার মাওনা কেন্দ্রের সহকারি সচিব। প্রশ্ন নিয়ে তিনি কাউকে দেয়ার চেষ্টা করছিলেন বলে জানা যায়।

কেন্দ্র সচিবের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সকাল ১০টায় গণিত পরীক্ষা চলছিল। আধা ঘণ্টার এমসিকিউ পরীক্ষা প্রায় শেষ, এমন সময় আমজাদ হোসেন নাহিন শিক্ষার্থীদের দেওয়ার জন্য সংরক্ষিত লিখিত প্রশ্নপত্রের বান্ডিল থেকে একটি প্রশ্ন সরিয়ে নিজের পকেটে নিয়ে বাইরে যেতে থাকেন।

এ সময় কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে থাকা শ্রীপুর পুলিশের শিক্ষানবিশ উপ-পরিদর্শক নয়ন ভূঁইয়া ঘটনাটি দেখে ফেলেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই কেন্দ্র সহকারি সচিব প্রশ্নপত্রসহ কেন্দ্র থেকে বের হওয়ার জন্য পিয়ার আলী কলেজ ভেন্যুর মূল ফটকের বাইরে যেতে চাইলে পুলিশের ওই কর্মকর্তা তাকে অনুসরণ করতে থাকেন।

ফটকের বাইরে গিয়ে প্রশ্নপত্রটি অন্য কাউকে হস্তান্তরের চেষ্টা করছিলেন তিনি। এ সময় শিক্ষককে প্রশ্নসহ হাতেনাতে ধরে ফেলেন পুলিশ কর্মকর্তা। তাৎক্ষণিকভাবে শিক্ষক তাঁর কাছে প্রশ্নপত্র থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেন।

পরে তাঁকে নিয়ে নির্দিষ্ট কক্ষে গিয়ে ওই কক্ষে সংরক্ষিত প্রশ্নপত্রগুলো গণনা করে একটি প্রশ্নপত্র কম পাওয়া যায়। পুলিশ ওই শিক্ষকের পকেট থেকে প্রশ্নটি উদ্ধার করেন। বিষয়টি কেন্দ্র সচিব শাহজাহান সিরাজকে জানান। কিছুক্ষণের মধ্যেই শিক্ষা কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে এসে ওই শিক্ষককে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেন।

পরীক্ষা কেন্দ্রে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রতিনিধি হিসেবে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন উপজেলা পাট কর্মকর্তা আশারফুল ইসলাম। তিনি জানান, প্রশ্নপত্রসহ শিক্ষক আটক হয়েছেন।

শিক্ষানবিশ উপপরিদর্শক (পিএসআই) নয়ন ভূঁইয়া বলেন, ‘প্রশ্ন পকেটে রাখার ঘটনাটি দেখে তাঁকে ধরার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। কিছুক্ষণের মধ্যে ওই শিক্ষক প্রশ্নপত্র নিয়ে কেন্দ্রের বাইরে যাচ্ছিলেন। আমি তাঁর পিছু নিই। ফটকের বাইরে গিয়ে তিনি প্রশ্নটি অজ্ঞাত কাউকে দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এমন সময় আমি তাঁকে ধরে ফেলি।’

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, তদন্তের স্বার্থে পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট সব দায়িত্ব থেকে ওই শিক্ষককে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

ঢাকা, ১০ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।