পাংশায় কলেজছাত্রকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ


Published: 2021-01-14 14:52:15 BdST, Updated: 2021-03-05 09:07:58 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের কাচারীপাড়া গ্রামের সাজেদুর রহমান সিফাত (১৮) নামে এক কলেজ শিক্ষার্থীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাত সাড়ে আটটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। সাজেদুর কাচারীপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে এবং পাংশা কলেজ থেকে এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন।

এ বিষয়ে পাংশার হাবাসপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম জানান, গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ব্যাটমিন্টন খেলা দেখে বন্ধু স্বপনের সঙ্গে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। বাড়ি থেকে ৩০০ মিটার দূরে একদল সন্ত্রাসী রাস্তার উপর গাছের গুড়ি ফেলে মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে হত্যার উদ্দেশে প্রথমে স্বপনের উপর ইট ছুড়ে মারে। এ বিষয়টা আজ করতে পেলে স্বপন দৌড়ে পালিয়ে যান।

পরে তারা সাজেদুরকে হাতুড়ি ও কাঠের বাটাম দিয়ে মারপিট ও কিল ঘুষিসহ পা দিয়ে লাথি দিতে থাকলে সে জোরে চিৎকার করতে থাকে। পরে স্থানীয়রা তার চিৎকারে এগিয়ে এলে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পাংশা উপজেলা কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রাত ১২টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গতবুধবার দুপুর সাড়ে ১১টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত আটটার দিকে তিনি মারা যান। তবে দুজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে পাংশা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহাদাত হোসেন বলেন, স্বপনের সাথে সন্ত্রাসীদের পূর্ব শত্রুতা থাকায় ঘটনা চক্রে সাজেদুর মারা যান। এ ঘটনায় থানায় কোনো অভিযোগ না পেলেও বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে দুজনকে আটক করা হয়েছে।

ঢাকা, ১৪ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।