বোরহানউদ্দিন কলেজে জমি কেনা নিয়ে গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান এবং অধ্যক্ষের দ্বন্দ্ব


Published: 2019-10-21 20:56:44 BdST, Updated: 2019-11-23 00:54:22 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ রাজধানীর নাজিমউদ্দীন রোডে অবস্থিত শেখ বোরহানউদ্দিন পোস্ট গ্রাজুয়েট কলেজে অধ্যক্ষ এবং গভর্নিং বডির চেয়ারম্যানের মধ্যে জমির দূর্নীতি নিয়ে দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে ক্যাম্পাস লাইভ জানতে পারে, কেরানিগঞ্জে কলেজের নামে ক্রয়কৃত জমি নিয়ে দূর্নীতি করে গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ড.হারুন অর রশীদ খান এবং তার দায় অধ্যক্ষ প্রফেসর আবদুর রহমানের কাঁধে চাপানোর চেষ্টা করছেন তিনি। বাজার মূল্যের চেয়ে বেশী মূল্য দেখিয়ে জমি কেনা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি করে অধ্যক্ষকে বেকায়দায় ফেলতে চান তিনি।

শিক্ষার্থীরা জানান, ২০১৫ সাল থেকে কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন বর্তমান অধ্যক্ষ আবদুর রহমান। কলেজে কোনো ধরনের অনিয়ম এবং দূর্নীতির সাথে জড়িত নন তিনি। কলেজের শিক্ষক রাফি এবং বাদল গভর্নিং বডির চেয়ারম্যানের সাথে লিয়াজোঁ করে অধ্যক্ষের নামে দূর্নীতির অভিযোগ তুলে ক্যাম্পাসের সুন্দর পরিবেশে ব্যঘাত ঘটাতে চেষ্টা করছেন।

কলেজ ক্যাম্পাস

 

শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, রাফি আর বাদল স্যার জমি কেনা নিয়ে গভর্নিং বডির চেয়ারম্যানের সাথে মিলে স্বল্প মূল্যের জমি বেশী দাম দেখিয়ে ক্রয় করে তার দায়ভার অধ্যক্ষের দিকে চাপিয়ে তাকে কোনঠাসা করে ক্যাম্পাসে তাদের আধিপত্য বিস্তার করতে চায়।

এ ব্যাপারে অধ্যক্ষ প্রফেসর আবদুর রহমানের সাথে কথা বললে তিনি ক্যাম্পাস লাইভকে জানান, জমি কেনা নিয়ে যে অভিযোগ আমার দিকে দেয়া হচ্ছে আমি এর ব্যাপারে কিছুই জানিনা, আর আমি গভর্নিং বডির একজন সদস্য মাত্র। সকল সদস্যদের মতের বাইরে আমি একা কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার এখতিয়ার আমার নেই।

গভর্নিং বডির চেয়ারম্যানের করা অভিযোগের ব্যাপারে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, জমি কেনা নিয়ে আমার দিকে যে অভিযোগ দেয়া হয়েছে সেটাই আমার জানা নেই।

জমি কেনা নিয়ে দূর্নীতির সঙ্গে জরিত অভিযোগ পাওয়া শিক্ষক বাদলের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, আপনারা প্রমান নিয়ে আসেন, তারপর আমার বক্তব্য আমি দিব। প্রমানের আগে কোনো কথা বলতে রাজি হননি তিনি।

ঢাকা, ২১ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।