নিরাপত্তার দাবিতে চুয়েট শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন


Published: 2017-11-21 21:06:35 BdST, Updated: 2017-12-14 04:30:54 BdST


চুয়েট লাইভ: চট্টগ্রাম নগরীতে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মত আজও ক্লাস বর্জন ও অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) শিক্ষার্থীরা। ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে একাডেমিক কার্যক্রম।

গত ১৯ নভেম্বর রবিবার রাতে নগরীর অক্সিজেন মোড়ে স্থানীয়দের হামলায় তিন চুয়েট শিক্ষার্থী আহত হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার ক্লাস বর্জন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রশাসনিক ভবনের সামনে মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা। তারই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবারও অবস্থান কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা।

উপস্থিত পুরকৌশল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রাফসান জানি রিসান বলেন, আমরা দ্রুত ক্লাসে ফিরে যেতে চাই কিন্তু সেই সাথে আমাদের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের দাবি জানাচ্ছি। প্রশাসন ও সরকারের উচিত শিক্ষার্থীদের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ নভেম্বর রোববার রাত সাড়ে নয়টায় ক্যাম্পাসগামী চুয়েটের বাসগুলো অক্সিজেন মোড় পার হবার সময় কর্ণফুলী বাসের হেলপারের সাথে স্থানীয় এক যুবকের কথা কাটাকাটি হয়।

এর প্রেক্ষিতে যুবকটি কর্ণফুলী বাসের হেলপারকে বাস থেকে নামিয়ে নেয় এবং কয়েকজন সঙ্গীসহ মারধর করে। ঐ লোকসহ কয়েকজনের সাথে শিক্ষার্থীদের হাতাহাতি শুরু হয় । সেখানে একজন চুয়েট শিক্ষার্থী আঘাতপ্রাপ্তও হন। পরবর্তীতে তিনটি বাসের শিক্ষার্থীরা সড়কে অবস্থান নিয়ে এর প্রতিবাদ করে। পরে চুয়েট বাস ক্যাম্পাসে ফিরে আসার সময় চট্টগ্রাম জেলা ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি আবদুর নবী লেদু শিক্ষার্থীদের সাথে দুর্ব্যবহার করে এবং ২ জন শিক্ষার্থীদের গালে চড় মারে।

এ ঘটনায় শিক্ষাথীরা উত্তেজিত হয়ে পড়লে স্থানীয়দের সাথে আবার ও শিক্ষার্থীরা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে চুয়েটের তিন শিক্ষার্থী, আবদুল নবী লেদু এবং তার কিছু অনুসারী আহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পরবর্তীতে বায়েজিদ থানার পুলিশ এসে ঘটনাস্থল নিয়ন্ত্রণ নিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এদিকে নিরাপত্তার স্বার্থে গত দুইদিন চুয়েটের কোনো বাস শহরের উদ্দেশ্যে আসেনি।


এই পরিস্থিতিতে আজ মঙ্গলবার বিকেলে ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম সকল অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান এবং হল প্রভোস্টদের সাথে বৈঠকে বসেন। বৈঠকে নগরীতে নিরাপদে যাতায়াত সমস্যা নিরসনে আবদুর নবী লেদুর সঙ্গে বৈঠকে বসার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মশিউল হক জানান, চট্টগ্রাম শহরে চুয়েট বাস চলাচল আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে। কাল বুধবার চুয়েট কর্তৃপক্ষ পুলিশের মধ্যস্থতায় আবদুর রহমান লেদুর পক্ষের সাথে আলোচলায় বসবে। এর আগ পর্যন্ত চট্টগ্রাম শহরে চুয়েটের বাস চলাচল করবে না।


ঢাকা, ২১ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।