চবিতে ভাংচুরের ঘটনায় মামলা, তদবির!


Published: 2017-11-08 22:47:49 BdST, Updated: 2017-11-19 05:34:55 BdST



চবি লাইভ: অবশেষে মামলা ঠুকেছেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তাদের যেন টনক নড়েছে। এই নিয়ে চলছে রাজনৈতিক তদবীর। মামলা উঠিয়ে নেয়ার তদবীরও আসছে বিভিন্ন মহল থেকে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) প্রশাসনিক ভবনে ভাঙচুর ও সম্পদহানির ঘটনায় বেশ কয়েক ঘন্টার পর মামলা দায়ের করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে কারো নাম উল্লেখ করেনি।
সকলের নাস কর্তৃপক্ষ জানে কিন্তু আসামী করেনি। এতে অজ্ঞাত ২০ জনকে আসামি হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় চবি রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. কামরুল হুদা বাদী হয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় এ মামলা দায়ের করেন বলে জানাগেছে।


মামলা দায়েরের বিষয়ে রেজিস্ট্রার বলেন, ভাঙচুর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পদহানি করায় ২০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে এ মামলা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আনুমানিক ৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হবে।

এদিকে বিষয়টি নিশ্চিত করে হাটহাজারী মডেল থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। সেটা আমরা আমলে নিয়েছি।

প্রসঙ্গত মঙ্গলবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক আমীর উদ্দিনের অপসারণের দাবিতে ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সভাপতি আলমগীর টিপুর দেয়া ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম শেষ হতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যালয়ে ব্যাপক ভাঙচুর তাণ্ডব চালায় তার ছাত্রলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা।

এ অংশটি নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

এ সময় প্রশাসনিক ভবনের নিচে থাকা ৪টি প্রাইভেট কার, ৫ মোটরসাইকেল ও ভিসির কার্যালয়ের দুটি জানালার কাঁচ, ৭টি ফুলের টব, রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের জানালার কাঁচ, ১২টি ফুলের টব, ভাঙচুর করা হয়।


ঢাকা, ০৮ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।