ফেনীর সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম এখন শাহবাগে...


Published: 2019-06-16 18:49:12 BdST, Updated: 2019-07-23 22:46:44 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ আলোচনা এখন দেশজুড়ে একটাই। কোন রাজনৈতিক সমালোচনা নেই। বাজেট নয় দেশবাসির নজর কেড়েছে ইন্সপেক্টর মোয়াজ্জেম। তিনি এতো দিন কোথায় ছিলেন, কাদের নজর দারিতে ছিলেন এ কথা দেশবাসির কাছে স্পস্ট বলে নিহতের পরিবারের দাবী। তারা বলেছেন যাই হোক মোয়াজ্জেমের উপযুক্ত বিচার হওয়া দরকার। যাতে এভাবে আর কোন নারীকে অপদস্ত না হতে হয়।

এদিকে ,আসামি ফেনী জেলার সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে গ্রেফতারের পর শাহবাগ থানায় রাখা হয়েছে। রোববার দুপুরে তাকে শাহবাগ থানাধীন হাইকোর্ট এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। যদিও এ ব্যাপারে রয়েছে নানান বিতর্ক।

তবে মোয়াজ্জেমকে কী অবস্থায়, কীভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে- তাকে কারা নজরদারিতে রেখেছিল এ বিষয়টি এখনও রয়েছে অজানা। তা এখনও নিশ্চিত করেনি পুলিশ। তিনি এতদিন কোথায় আত্মগোপনে ছিলেন সে বিষয়ে কোনো তথ্য জানানো হয়নি। সংশ্লিস্টরা বলেছেন আসামী তো ধরা পরেছে। এখন আনতে হবে বিচারের কাঠগড়ায়।

সে যাই হোক মোয়াজ্জেমকে ফেনী জেলার সোনাগাজি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। সেখান থেকেই তাকে আদালতে তোলা হবে। চাওয়া হবে ৭ দিনের রিমান্ড।
মোয়াজ্জেমের গ্রেফতারের বিষয়ে পুলিশের রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার জানান, ‘তাকে বর্তমানে শাহবাগ থানায় রাখা হয়েছে।’

উল্লেখ্য সাংবাদিকদের শাহবাগ থানায় ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। সেখানে দুপুরের পর থেকেই চলছে খুবই কড়াকড়ি। গ্রেফতারের বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে জানাগেছে।।

ফেনীতে হত্যাকাণ্ডের শিকার মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জবানবন্দির ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়ানোয় অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহানকে গত ৬ এপ্রিল পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়।

তার দিন দশেক আগে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানাতে সোনাগাজী থানায় যান নুসরাত। থানার তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন সে সময় নুসরাতকে আপত্তিকর প্রশ্ন করে বিব্রত করেন এবং তা ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

এ ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হলে আদালতের নির্দেশে সেটি তদন্ত করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পিবিআই গত ২৭ মে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিলে ওই দিনই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। পরোয়ানা জারির দুইদিন পর মোয়াজ্জেম হোসেন হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন। তিনি বিভিন্ন ভাবে তদবীর করে বেড়াচ্ছিলেন বলে তথ্য মিলেছে।

ঢাকা, ১৬ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।