এবার ছাত্রীকে যৌনহয়রানি করলো অফিস সহকারী!


Published: 2019-04-20 21:10:48 BdST, Updated: 2019-05-23 11:50:07 BdST

লক্ষ্মীপুর লাইভঃ এবার শিক্ষক নয় অফিস সহকারীর দ্বারা যৌনহয়রানির শিকার হয়েছেন বেশ কয়েকজন ছাত্রী। নানান কলা কৌশলে তিনি এসব করে বেড়াতেন। প্রতারণা ও পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে তিনি এসব করতেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না তার। অবশেষে এক ছাত্রীর অভিযোগে বেড়িয়ে এসেছে ওই অফিস সহকারীর কীর্তিকলাপ।

জানাগেছে লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার জনকল্যাণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারীর বিরুদ্ধে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ মিলেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত অফিস সহকারী শুক্রবার রাতে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

অভিযুক্ত অফিস সহকারীর নাম তাবারক হোসেন আজাদ। তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন। বলেছেন আমাকে ফাঁসানো হয়েছে। তবে ছাত্রীদের অভিযোগ তিনি অনেক আগে থেকেই এসব করে বেড়াতেন।

কয়েকজন ছাত্রীর অভিযোগ, ‘তাবারক হোসেন আজাদ স্কুলের অফিস সহকারী হলেও মাঝে মাঝে ক্লাস নিতেন। ক্লাসে ছাত্রীদের নানাভাবে যৌন হয়রানি করেন। তার প্রস্তাবে রাজি না হলে ফেল করিয়ে দেয়া হবে বলেও হুমকি দেন। সম্প্রতি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে জড়িয়ে ধরে যৌন হয়রানি করেন।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে স্কুলের ১০ শিক্ষার্থী ও অভিভাবক তাবারক হোসেন আজাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়।

একই সঙ্গে তাকে অপসারণ ও শাস্তির দাবি জানানো হয়। তার যৌন হয়রানির শিকার ওই ছাত্রী জানায়, ‘গত ১৬ এপ্রিল অভিযুক্তের বিরুদ্ধে প্রধান শিক্ষকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। বিষয়টি যাতে আর কাউকে না জানাই সেজন্য আজাদ (অভিযুক্ত) তার বাবাকে পাঠিয়েছেন আমাদের বাড়িতে।

তিনি বিষয়টি চেপে যেতে বলেছেন। তার ছেলের ক্ষতি হলে বিষয়টি দেখে নেবেন বলেও হুমকি দিয়ে গেছেন আজাদের বাবা। এসব বিষয়ে ওই পরিবার ছিল আতঙ্কে। তারা এলাকার বিভিন্ন অভিবাবক ও লোকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে অবশেষ শক্ত হয়েই অভিযোগ নিয়ে লড়ছেন বলে জানাগেছে।

এদিকে অভিযুক্ত তাবারক হোসেন আজাদ দাবি করেন, ‘তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ওই ছাত্রীর বাবা সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন অনেক আগে। এ কথা শুনে ওই ছাত্রীকে স্নেহ করে জড়িয়ে ধরি। যৌন হয়রানির কিছুই করা হয়নি।’ বিদ্যালয়ে কর্তৃপক্ষের অনুরোধে তিনি পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। ওই বিষয়টি নিয়ে এলাকায় নানান গুঞ্জন চলছে।

জনকল্যাণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, ‘বিষয়টি আমাদের জন্য লজ্জাস্কর। এ ধরনের কোন ঘটনা অতিতে ঘটেনি এখানে।

তিনি আরও বলে ওই ছাত্রী গত ১৬ এপ্রিল লিখিত অভিযোগ করেছে। আমরা এই ঘটনায় তদন্ত করে সত্যতাও পেয়েছি। এ কারণে তাবারক হোসেন আজাদকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

প্রধান শিক্ষক রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী আরও বলেন, এই দু:খজনক ঘটনাটি ইউএনওকে মৌখিকভাবে জানিয়ে রেখেছি। তিনি এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। ওই ছাত্রীর অভিবাবকের সঙ্গে আলোচনা করে আমরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

তবে এই ঘটনায় ক্রমেই এলাকাবাসী ফুঁসে উঠছেন। তারা ২/৩ দিনের মধ্যে বিভিন্ন পালন করতে পারে বলে বেশ কয়েকজন জানিয়েছেন।

ঢাকা, ২০ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।