ফেইসবুকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছবি, প্রেমের নামে নোংরামি!


Published: 2019-04-18 21:50:09 BdST, Updated: 2019-07-17 19:29:56 BdST

ক্লাস নাইনের মেয়ে। বন্ধু বানায় ফেসবুকে। প্রেম করে পার্কে গিয়ে! ছেলেও সেরা। ফেসবুকে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছবি আপলোড করে। আসলে সে অষ্টম শ্রেণি পাশ বেকার তার সাথে গ্রেফতার হওয়া বন্ধু বন্দরে কন্টেইনারের মাল ডাউনলোড করে!

পরিবার ফাঁকি দিয়ে, স্কুল ফাঁকি দিয়ে প্রেম শুরু করে। আর ছেলে সেই ফাঁকি দেওয়া প্রেমের ফাঁকফোকর খুঁজে। এমন প্রেম যখন কেউ শুরু করে তখন তাতে আর ভালবাসা থাকে না, নোংরামি ভর করে। তাদের এই ভালবাসাও তেমন নোংরা হয়ে যায়।

মেয়ে ছেলেকে যতটুকু 'ভালবাসে' ছেলে মেয়েকে তার চেয়ে দুই হাত বেশি 'ভালবাসে'। তাইতো ছেলে মেয়েকে দুই হাতে জড়িয়ে ধরে, অন্তরঙ্গ ছবি তোলে। পরে সেই ছবি ভাইরাল করার ভয় দেখিয়ে দুই হাতে টাকা দাবি করে! পরে মেয়েটি আমাদের কাছে এসে সহায়তা চাইলে আমরা ছেলেটিকে হাতে নাতেই আটক করি।

ছেলের নাম মাইনুদ্দিন সায়মন। মিথ্যা তথ্য দিয়ে আইডি খুলে ফেসবুকে। বন্ধুত্ব পাতে ভিকটিমের সাথে। এক পর্যায়ে বন্ধুত্বটা তথাকথিত প্রেমে পরিণত হয়। চ্যাটিং ছেড়ে ডেটিং শুরু করে তারা। সেই ডেটিংয়েই আপত্তিকর ছবি তোলে সায়মন।

পরে সেই ছবি দিয়েই ব্ল্যাকমেইলিং শুরু করে সে। দাবি করে ২০ হাজার টাকা! ছবিগুলো মেয়ের পরিবারের কাছেও পাঠায় সে। তাদের কাছেও টাকা দাবি করে। পরে মেয়ে এসে আমাদের কাছে অভিযোগ করলে সিআরবি এলাকা থেকে সহযোগী মেহেদী হাসান রিপনসহ তাকে আটক করা হয়।

সায়মন অপরাধ করেছে এটা সত্য। কিন্তু মেয়েটা যে ভুল করেছে এটাও সত্য। আমি বিশ্বাস করি, প্রেমের গন্তব্য কখনো বিছানা হতে পারে না। শরীর কখনো ভালবাসার লক্ষ্যবস্তু হতে পারে না। এই লক্ষ্যে যা হয় তা নোংরামি, তা ভণ্ডামি।

প্রিয় অভিভাবকবৃন্দ, আপনার সন্তান এমন চ্যাটিং-ডেটিংএ ব্যস্ত কিনা খবর রাখুন। প্রয়োজনে আমাদের সহযোগিতা নিন।

কার্টেসি : Mohammad Mohsin (PPM)
চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ

ঢাকা, ১৭ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।